রাফালের দাম কত না জানালেও upa এর থেকে ৯ % কমে কিনছে সরকার দাবি প্রতিরক্ষামন্ত্রীর

0
43

এদেশে অার পাঁচটা দুর্নীতির মত রাফালেও দুর্নীতি হয়েছিল কি না হলে কে দায়ী তা কোনদিনই হয়তো জানা যাবে না। তবে রাফালের দাম নিয়ে যা শুরু হয়েছে তা  একটি প্রশ্নকেই বারবার সামনে অানছে। রাফালের ঠিক দাম কত? কংগ্রেসের তরফে যখন অভিযোগ করা হচ্ছে রাফাল কিনতে  মোদি সরকার প্রায় ইউপিএর সময়কার চুক্তি  থেকে ৩গুন দাম দিচ্ছে। অথচ মঙ্গলবার নয়াদিল্লিতে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে প্রতিরক্ষামন্ত্রী নির্মলা সীতারমন জানিয়েছেন ইউপিএর সময় যে দাম নির্দিষ্ট হয়েছিল তার  থেকে প্রতিটি বিমান ৯ শতাংশ কম দামে তারা কিনছেন। কিন্তু ঠিক কত দামে তারা কিনছেন এই ছোট্ট কথাটা তিনি এদিনও জানান নি। জানালেই ল্যাঠা  চুকে যেতো।

কংগ্রেসের তরফে দাবি করা হয়েছে UPA অামলে চুক্তি হয়েছিল  ফরাসি সংস্থা দ্যাঁসল্ট  থেকে  ৫২৬ কোটি টাকায় প্রতিটি রাফাল বিমান কেনার। সেই চুক্তি বাতিল করে মোদি সরকার ওই একই সংস্থা থেকে ১৬৭০ কোটি টাকায় বিমান কেনার চুক্তি করেছে। কিছুদিন অাগে দিল্লিতে এক সাংবাদিক  বৈঠকে  অরুণ শৌরি, প্রশান্ত ভূষণ ও যশবন্ত সিনহা অভিযোগ করেছিল রাফাল চুক্তির জন্য প্রায় ৩৫০০০ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে কেন্দ্রের।  সেই বৈঠকে   শৌরি জানিয়েছিলেন  বর্তমান সরকারের এই ‘বোকারা’ ২০১৬ সালের নভেম্বরে লোকসভায় বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছিলপ্রতিটি রাফাল বিমানের দাম ৬৭০ কোটি টাকা। সরকার এখন দাম প্রকাশ করতে না  চাইলেও সাংবাদিক বৈঠকে অরুণ শৌরির দাবি রাফাল নির্মাতা দ্যাঁসল্ট এক প্রেস বিজ্ঞপ্তি জারি করে যে তথ্য জানিয়েছে তা থেকে দেখা যাচ্ছে প্রতিটি বিমান কেনা হচ্ছে অন্তত ১৬৬০ কোটি টাকায়। সরকারের বিরোধীরা রাফাল কেনার একটা দাম বলছেন অথচ সরকার জানাচ্ছে না কোন দাম। বিষয়টা দুর্নীতির না মজার? কেউ কেউ বলবেন এদেশে দুর্নীতির বিষয়টা এতটা সহজ হয়ে গেছে ওটাতে মজার।  এদেশে কোন দলের সরকারকেই নিজেদের অভিযোগ বা প্রতিশ্রুতির কোনটারই জবাব দিহি করার দায় নেই। ফলে রাফালের  দাম অাদৌ কোনদিন জানা যাবে কি না তা সন্দেহ। যেভাবে সিঙ্গুরে টাটাদের সঙ্গে রাজ্য সরকারের ঠিক কী চুক্তি হয়েছিল তা জানায়নি মা, মাটি ও মানুষের সরকার।