জনগণের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছে বিজেপি ,প্রতিবাদে সভা শহরে

ভুয়ো সংঘর্ষে হত্যা করা হচ্ছে দেশের নাগরিককে,প্রতিবাদী কন্ঠ অবরুদ্ধ করতে জেলে পাঠান হচ্ছে মানবাধিরার কর্মীদের,দেশের মধ্যে ধর্মীয় বিভাজন ও জাত পাতের বিভাজন উসকে দিয়ে রাজনৈতিক ফায়দা লোটার চেষ্টা চলছে।জন জমি জঙ্গলের অধিকার তুলে দেওয়ার চেষ্টা চলছে বড় বড় কর্পোরেট সংস্থাগুলোর হাতে।সব মিলিয়ে এ দেশের জনগণের বিরুদ্ধেই যুদ্ধ ঘোষণা করেছে বিজেপি তাই সব স্তরের মানুষের আশু কর্তব্য প্রতিবাদে নামা।সেই দাবি নিয়েই শুক্রবার কলকাতার সুবর্ণ বণিক সমাজ হলে একত্রিত হলেন দেশের একাধিক মানবাধিকার কর্মী।প্রতিবাদী এই জনসভায় বিজেপি যে গোটা দেশে একদলীয় ফ্যাসিবাদী শাসন কায়েম করার লক্ষ্যে এগুচ্ছে তার ব্যাখ্যা দেন বক্তারা।বিজেপির দলিত বিদ্বেষের শিকার রোহিত ভেমুলার মা রাধিকা ভেমুলা,কাশ্মীরের নাতাশা রাঠোর,মণিপুরের বসন্ত কুমাররা তাদের অভিজ্ঞতার কথা বলবেন এই সভায়।শুক্রবার সারাদিন এই সভা চলবে,এ রাজ্যের মানবাধিকার কর্মীরাও তাদের বক্তব্য রাখবেন।এদেশের গণতন্ত্র ও বহুত্ববাদী সংস্কৃতি রক্ষা করতে এখনই বিজেপির বিরুদ্ধে কেন প্রতিরোধ গড়ে তোলা উচিত তার যুক্তি দেবেন বক্তারা।এই সভায় উপস্থিত থাকতে সকল গণতন্ত্র প্রিয় মানুষকে আহ্বান জানিয়েছেন রাজ্যের একাধিক মানবাধিকার সংগঠন।