পুজো কমিটিকে সরকারি অনুদানের সিদ্ধান্তে হাইকোর্টের স্থগিতাদেশ

দুর্গা পুজো কমিটিগুলিকে ১০ হাজার টাকা করে সরকারি অনুদান দেওয়ার সিদ্ধান্তের ওপর মঙ্গলবার পর্যন্ত স্থগিতাদেশ জারি করল কলকাতা হাইকোর্ট। হাইকোর্ট মঙ্গলবার এ বিষয়ে রাজ্য সরকারি সিদ্ধান্তের ব্যাখ্যা চেয়েছে।সরকারের বক্তব্য শুনে কোর্ট তার মত দেওয়ার আগে পর্যন্ত পুজোয় অনুদান দেওয়ার সিদ্ধান্তের উপর স্থগিতাদেশ বজায় থাকবে।   মুখ্যমন্ত্রী মমতা বল্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেছিলেন এবার এ রাজ্যের ২৮ হাজার দুর্গা পুজো কমিটিকে ১০ হাজার টাকা করে সরকারি অনুদান দেওয়া হবে।মুখ্যমন্ত্রীর এই ঘোষণাকে সংবিধানের পরিপন্থী বলে মনে করে হাইকোর্টে জনস্বার্থ মামলা দায়ের করা হয়েছিল।জনস্বার্থ মামলাকারী আইনজীবীর পক্ষ থেকে দাবি করা হয় পুজোর মত একটি ধর্মীয় অনুষ্ঠানে সরকার কোন ভাবেই অর্থ দিতে পারে না।প্রসঙ্গত বলা হয়েছিল এর আগে ইমামদের ভাতা দেওয়ার সরকারি সিদ্ধান্তও ঠিক একই কারণে কোর্টের বিচার্য বলে আটকে রয়েছে।এদিন রাজ্যের পক্ষের আইনজীবীর কাছে বিচারক জানতে চান কেন সরকার আচমকা সরকারি অর্থ পুজো কমিটিগুলো দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল?উত্তরে সরকার পক্ষের আইনজীবী বলেন,পুজোকে কেন্দ্র করে জনসচেতনাতা বাড়ানোর জন্যই এই সরকারি সিদ্ধান্ত।বিচারক এই উত্তরে সন্তুষ্ট না হয়ে বলেন,আর অনেকভাবেই সচেতনতা তৈরি করা যায়,তাই এটা কোন যুক্তি হতে পারে না।তাছাড়া এ রাজ্যে ২৮ হাজারের অনেক বেশী পুজো হয়,কোন ভিত্তিতে নির্দিষ্ট ২৮ হাজার পুজো কমিটিকে বাছা হল তা জানতে হবে।