রাকশে অাস্থানার মেয়ের বিয়ের খাবার এসেছিল ফ্রিতে, হোটেল ভাড়া ১৭৫টাকা

CBI এর সদ্য অপসারিত বিশেষ অধিকর্তা রাকেশ অাস্থানার বিরুদ্ধে ৩ কোটি টাকা ঘুষ নেওয়ার অভিযোগে FIR দায়ের করেছে খোদ CBI । কিন্তু  রাকেশ অাস্থানার বিরুদ্ধে দুর্নীতির মামলা এটাই একমাত্র নয়। মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী মোট ৬টি অনিয়মের ক্ষেত্রে সিবিঅাইয়ের নজরে রয়েছেন অাস্থানা। যার মধ্যে ২০১৬ সালে হওয়া মেযের বিয়ের অনুষ্ঠানও রয়েছে। ২০১৬ সালের ২৪ ও ২৫ নভেম্বর ভদোদরায় রাকেশ অাস্থানার মেয়ের বিয়ের অনুষ্ঠান হয়েছিল। এখানেই একসময় পুলিস কমিশনারও ছিলেন রাকেশ অাস্থানা। বিয়ের সময় ভদোদরার একটি নামিদামি হোটেল মাত্র ১৭৫টাকা ভাড়ায় ৩৫টা ঘর দিয়েছিল অাস্থানার পরিবারকে। সেই সময় ওই হোটেলের ঘরের ভাড়া ছিল ৩০০০ টাকার মত। অনুষ্ঠানের খাবার সরবরাহকারী ক্যাটারার সংস্থা পুরোটাই করেছিল ফ্রিতে।  বিয়ের অাগে সঙ্গীত হয় যে ভবনে সেটি ছিল চেতন সানদেশারার। চেতন সানদেশারা হলেন স্টারলিং বায়োটেকের অন্যতম ডিরেক্টর। যে স্টারলিং বায়োটেকের ২ মালিক ৮১০০ কোটি টাকা ব্যাঙ্ক প্রতারণা করে দেশ ছেড়ে পালিয়েছে। শুরু হয়েছে সিবিঅাইয়ের তদন্ত। তদন্তের দায়িত্বে রাকেশ অাস্থানা। যে স্টারলিং বায়োটেকের কাছ থেকে ৩ কোটি ৮০ লক্ষ টাকা ঘুষ নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে রাকেশ অাস্থানার বিরুদ্ধে। এহেন অফিসারকে সিবিঅাইতে নিযুক্ত করা হয় স্পেশ্যাল ডিরেক্টর হিসাবে। নরেন্দ্র মোদির স্পেশাল চয়েস নাকি এই অফিসার? ফলে একে বাঁচাতে করপোরেটরা যে ঝাঁপিয়ে পড়বে তাতে অবাক হওয়ার কী অাছে? চা ওয়ালা তো নিমিত্ত মাত্র।

সূত্র ইন্ডিয়া টুডে