শালবনিতে সরকারি হাসপাতাল জিন্দালদের হাতে তুলে দেওয়ার প্রতিবাদ

0
8

শালবনিতে রাজ্য সরকারের সুপার স্প্যাশালিটি হাসপাতালটিকে জিন্দালদের হাতে তুলে দেওয়ার সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ করেছে একাধিক চিকিত্সক ও মানবাধিকার সংগঠন। সুনামের সঙ্গে জঙ্গলমহলের বিস্তীর্ণ অঞ্চলের মানুষকে পরিষেবা দিচ্ছিল এই হাসপাতাল। চিকিত্সকদের একাংশ মনে করছেন এর ফলে গরীব মানুষের কাছে বিনামূল্যে স্বাস্থ্য পরিষেবা পৌঁছানোর পথ বন্ধ হবে।  সূত্রের খবর  জিন্দালদের সঙ্গে রাজ্য সরকারের স্বাক্ষরিত মউতে  বলা হয়ছে শালবনির এই হাসপাতালে ৭৫ শতাংশ বেড থাকবে ফ্রি। কিন্তু তা যে কথার কথা তা ইতিহাস বলছে।  ইতিমধ্যেই সরকারের তরফে নতুন ওষুধপত্র অাসা প্রায় বন্ধ হয়ে গেছে বলে জানিয়েছেন নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক চিকিত্সক।

রাজ্যে সরকারি স্বাস্থ্য পরিষেবাকে ভেঙে দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছিল বাম জমানায়।  সরকারি হাসপাতালগুলোকে পঙ্গু করে দিয়ে ব্যাঙের ছাতার মত বেসরকারি নার্সিং হোমের রমরমা শুরু সেই অামলেই। বাইপাস জুড়ে ছাইপাস হাসপাতাল সেই সময় থেকেই।  বাম জমানাতে সরকারি ঢাকুরিয়ার নিরাময় পলিক্লিনিককে ১টাকার বিনিময়ে অামরি বানানো হয়েছিল। একটি নির্দিষ্ট শতাংশ রোগীদের বিনামূল্যে চিকিত্সা পরিষেবা দেওয়ার শর্তে। সেই শর্তকে থোড়াই কেয়ার করে অামরি কর্তৃপক্ষ বরং  রাজ্য সরকারি কর্মীদের ক্যাশলেস পরিষেবা দিতেও নারাজ অামরি।  বাম জমানায় শুরু হয়েছিল পিপিপি মডেলে হাসপাতালের ভেতর এক্সরে সহ একাধিক  পরিষেবার কার্যত বেসরকারিকরণ এখনও অব্যাহত রয়েছে সেই মডেল। এবার খোদ একটি সরকারি হাসপাতাল চলে যাচ্ছে বেসরকারি শিল্প গোষ্ঠীর হাতে। বিষয়টি শুধু উদ্বেগের নয়, প্রয়োজন প্রতিবাদের। অন্তত এমনটাই মনে করেন অনেকে।