বাম কংগ্রেসের অন্দরেই শুরু জোট জটিলতা

বামেরা কংগ্রেসের সঙ্গে জোট গড়তে আগ্রহী এ বিষয়টা সামনে আসতেই জটিলতা শুরু হয়ে গেল বাম ও কংগ্রেসের অন্দরেই।এ রাজ্যের বর্তমান পরিস্থিতিতে কেন কংগ্রেস তৃণমূলের চেয়েও বিজেপিকে বেশী বিপজ্জনক মনে করছে তা নিয়ে কংগ্রেসের একাধিক নেতা ও নেত্রী প্রশ্ন তুলতে শুরু করে দিলেন।বিষয়টিকে কেন্দ্র করে কংগ্রেসে আর ভাঙন অপেক্ষা করছে কিনা তা নিয়েও সংশয় তৈরি হয়ে গেছে।এ নিয়ে সবচেয়ে মুখর হয়েছেন মালদার মৌসম বেনজির নূর।তিনি সরাসরি বাাম কংগ্রেসের জোট নিয়ে আপত্তি জানিয়ে বলেছেন এখন বিজেপিকে আটকাতে কংগ্রেসের উচিত তৃণমূলের হাত ধরা।মৌসম বর্তমানে কংগ্রেসের সাংসদ।অনেকবারই তাঁর তৃণমূলে যোগ দেওয়া নিয়ে জল্পনা তৈরি হয়েছে,এবার সরাসরি বামেদের সঙ্গে জোট ভাবনার বিরোধিতা করে সেই জল্পনা তিনি আর বাড়িয়ে দিলেন বলে মনে করছে রাজনৈতিক মোহল।এছাড়াও অনেক কংগ্রেস কর্মী বামেদের সঙ্গে জোটের বিরোধিতায় গলা চড়াতে শুরু করেছেন।এ সবই এ রাজ্যে কংগ্রেসের আরএক প্রস্ত ভাঙনেরই ইঙ্গিত বলেই মনে করছেন রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা।অন্যদিকে আবার বামদের পক্ষ থেকেও জোটের বিরোধিতা শুরু হয়েছে।বাম শরিক ফরোয়ার্ড ব্লক ও সিপিআই কংগ্রেসের সঙ্গে জোটের বিরোধিতা করেছে।এই দুই বাম দলের মতে কংগ্রেস ধর্মনিরপেক্ষতার প্রশ্নে কোনভাবেই ধোয়াতুলসি পাতা নয়।শাহবানু মামলা ও রাম মন্দিরের দরজা খুলে দিয়ে এদেশে সাম্প্রদায়িক রাজনীতির বীজ কংগ্রেসই বপন করেছে তাই তাদের সঙ্গে জোট করা মানে নিজেদেরও সেই পাপের অংশি বানিয়ে ফেলা।তবে সিপিএমের এ রাজ্যের শীর্ষ নেতারা অনেকেই মনে করছেন এখন তৃণমূল ও বিজেপিকে রুখতে কংগ্রেসের হাত না ধরলে ভোট ভাগাভাগিতে একেবারে পেছিয়ে পড়ার সম্ভাবনা।সব মিলিয়ে কংগ্রেস ও বামেদের জোট জটিলতা একেবারে তাদের অন্দর মোহলে ঢুকে পড়েছে তা নিয়ে কোন সন্দেহের অবকাশ নেই।

,