জঙ্গলমহলে মাও তকমা দিয়ে গ্রেপ্তার ২ ছাত্র সহ ৪জন-প্রতিবাদে শহরে মিছিল ছাত্রদের

জঙ্গলমহলে গিয়ে সেখানকার পরিস্থিতি পর্যালোচনা করতে চেয়েছিলেন, ছাত্র ও নাগরিক সংগঠনের প্রতিনিধিরা। অভিযোগ সেখানে পা রাখতেই মাওবাদী তকমা দিয়ে তাঁদের গ্রেপ্তার করেছে রাজ্য পুলিশ। মঙ্গলবার মেদিনিপুরের গোয়ালতোড়ে গিয়েছিলেন বন্দী মুক্তি কমিটির সদস্য,সঞ্জীব মজুমদার, ছাত্রসংগঠন   ইউএসডিএফের টিপু সুলতান,বর্ধমান মেডিকেল কলেজের ছাত্র অর্কদীপ্ত ও জামিনে মুক্ত  মাও নেতা  সব্যসাচী গোস্বামী।  আচমকা পুলিশ এসে মাওবাদী তকমা দিয়ে তাঁদের গ্রেপ্তার করে নিয়ে যায়। তাদের বিরুদ্ধে দেশদ্রেোহিতার মামলা রুজু করেছে পুলিস।   পুলিশের এই আচরণের তীব্র নিন্দা করে বিবৃতি দিয়েছে মানবাধিকার সংগঠন এপিডিআর।এপিডিআরের সদস্য ও মানবাধিকার আন্দোলনের কর্মী রঞ্জিত শূর পুলিশি আচরণের তীব্র নিন্দা করে বলেছেন,জঙ্গলমহল কোন নিষিদ্ধ এলাকা নয় সেখানে যাওয়া অপরাধ হতে পারে না।এই আচরণ চূড়ান্ত স্বৈরাচারি ও গণতন্ত্রের কন্ঠ রোধের পরিচয়।তারা এর বিরুদ্ধে নাগরিক প্রতিবাদ সভা করবে বলেও জানান রঞ্জিত শূর।মোদি ও মমতা যে একই ফ্যাসিবাদী মানসিকতা নিয়ে চলছে এই ঘটনায় তাও সামনে চলে এল বলে মনে করছেন রাজ্যের একাধিক নাগরিক আন্দোলনের কর্মী।নাগরিক সচেতনতা বাড়াতে না পারলে এই প্রক্রিয়াকে প্রতিরোধ করা সম্ভব হবে না বলেই মত অধিকাংশের। এই গ্রেফতারির প্রতিবাদ ও মুক্তির দাবিতে এদিন যাদবপুরে  মিছিল করেন বেশ কিছু ছাত্রছাত্রী।

,