ব্যক্তিগত জীবনের টানাপোড়েনের জেরেই কি মন্ত্রিত্ব থেকে ইস্তফা দিলেন শোভন চট্টোপাধ্যা? মেয়রপদেও ইস্তফা

অাগেই খোয়াতে হয়েছিল শোভন চট্টোপাধ্যায়ের মন্ত্রীর পদ এবার ইস্তফা দিতে হল কলকাতা পুরসভার মেয়রের পদ থেকেও। জল্পনার অবসান ঘটিয়ে বৃহষ্পতিবার মেয়রপদ থেকে ইস্তফা দিলেন তিনি। মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী কলকাতার নতুন মেয়র হচ্ছেন পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম।

 

ব্যক্তিগত জীবনের টানাপোড়েনের জেরে দীর্ঘদিন ধরেই কাজে অবহেলার অভিযোগ উঠছিল শোভন চট্টোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে। তিনি নিজেও একাধিকবার মন্ত্রিত্ব থেকে ইস্তফাও দিতে চেয়েছিলেন। অবেশেষে রাজ্যমন্ত্রিসভা থেকে মঙ্গলবার ইস্তফা দিলেন শোভন চট্টোপাধ্যায়। বুধবার মেয়প পদ থেকেও ইস্তফা দেবেন বলে শোনা যাচ্ছে। এদিন বিধানসভায় ভুল তথ্য পেশ করায় অাবাসনমন্ত্রী শোভন চট্টোপাধ্যায়ের পর চটে যান মুখ্যমন্ত্রী। হয়তো এটাই অনুঘটক হিসাবে কাজ করে শোভন চট্টোপাধ্যায়ের ইস্তফা দেওয়ার কারণ হিসাবে। এর পরই নবান্নে  গিয়ে ইস্তফা দিয়ে অাসেন শোভন চট্টোপাধ্যায়। তা গ্রহণ করেন মুখ্যমন্ত্রী।

 দীর্ঘদিন ধরেই মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায় নাকি তাঁর মায়ের কথা শুনছিলেন  না। তার মা মানে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মিডিয়ার সামনে এমনই চাঞ্চল্যকর অভিযোগ করেছিলেন শোভনের স্ত্রী রত্না চট্টোপাধ্যায়। কিন্তু ঠিক কোন কথা শোভন মমতার শুনছেন না তা স্পষ্ট করেননি রত্না। রত্নার দাবি তিনি ২২ বছর ধরে সুখেই ঘর সংসার করছিলেন। কিন্তু অল্প  দিনের মধ্যে  শোভনের  কী করে এতটা পরিবর্তন ঘটলো তা তিনি বুঝতে পারছেন না।

পারিবারিক অশান্তির জেরে  বেশ কিছুদিন ধরেই বিব্রত কলকাতার মহানাগরিক শোভন চট্টোপাধ্যায়। জল্পনা  বৈশাখি বন্দ্যোপাধ্যায় নামে এক মহিলার সঙ্গে ঘনিষ্ঠতার জেরেই নাকি পারিবারিক অশান্তি শুরু। আগে ওই মহিলার সঙ্গে আরেক মন্ত্রীর ঘনিষ্ঠতার গুঞ্জন শোনা গিয়েছিল।