তুতিকোরিনে স্টারলাইট খোলার পথে একধাপ কি এগোল বেদান্ত?

তুতিকোরিনে স্টারলাইটের বন্ধ কারখানা ছলে বলে কৌশলে ফের খোলার চেষ্টা করছে স্টারলাইট। ন্যাশনল গ্রিন ট্রাইব্যুনালের কাছে কারখানা চালু করার যে অাবেদন বেদান্ত করেছিল তার জেরে গঠিত নিরপেক্ষ তদন্ত কমিটির পেশ করা রিপোর্টে জানিয়েছে স্টারলাইট বন্ধের সিদ্ধান্ত ন্যায়ের বিরুদ্ধে ও বাস্তবসম্মত নয়। কমিটির পেশ করা রিপোর্টের প্রেক্ষিতে তামিলনাড়ু সরকার ও বেদান্তকে তাদের মত ১ সপ্তাহের মধ্যে জানাতে বলেছে  ন্যাশনল গ্রিন ট্রাইব্যুনাল। 

 এর অাগে এনজিটির কাছ থেকে কারখনা চালুর অনুমতি না পেলেও কারখানার সঙ্গে যুক্ত প্রশাসনিক বিভাগে কাজ করার অনুমতি অাদায় করে নিয়েছিল বেদান্ত। সেই সঙ্গে কারখানার দূষণ বিষয় একটি রিপোর্ট তাদের কাছে দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদকে জমা দিতে নির্দেশ দেয়  গ্রিন ট্রাইব্যুনাল। স্টারলাইটের দূষণের জেরে কারখানা বন্ধের দাবিতে  ১০০দিন ধরে অান্দোলেন পর ২২ মে করা বিক্ষোভে পুলিস গুলি চালালে নিহত হন অন্তত ১৩জন। অবস্থা বেগতিক দেখে গত ২৮ মে কারখানা বন্ধের নির্দেশ দেয় রাজ্য সরকার। কিন্তু কারখানা খোলার নানা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে বেদান্ত। ইতিমধ্যেই কেন্দ্রের কাছে পুনরায় পরিবেশের বিষয় ছাড়পত্রের জন্য অাবেদন করেছে স্টারলাইট। বিজনেজ লাইনের রিপোর্ট অনুযায়ী গত ২০ জুলাই লেকসভায় পরিবেশমন্ত্রী হর্ষবর্ধন জানিয়েছেন ১৪ ফেব্রুয়ারি কারখানা সম্প্রসারণের জন্য স্টারলাইটের পরিবেশের ছাড়পত্র চেয়ে করা অাবেদন বিবেচনা করছে কেন্দ্র। ১৩জনের নিহত হওয়া সত্ত্বেও ও কারখানা বন্ধের রাজ্য সরকারের সিদ্ধান্তের পরও স্টারলাইট সম্প্রসারণের অার্জিতে ভাবছে কেন্দ্র। এবার ‘নিরপেক্ষ’ কমিটির জমা দেওয়া রিপোর্টও কার্যত ম্যানেজ বলেই মনে করছেন ওয়াকিবহাল মহলের অনেকে।  স্টারলাইট খোলা কি তাহলে এখন শুধুই সময়ের অপেক্ষা।