জয়নগরে আচমকা শ্যুট আউটের বলি তিন,এলাকার বিধায়ক বিশ্বনাথ দাসই টার্গেট বলে অনুমান

0
7

বৃহস্পতিবার জয়নগরে প্রকাশ্যে দুষ্কৃতীদের গুলিতে প্রাণ গেল তিন ব্যক্তির।জানা যাচ্ছে জয়নগরের বিধায়ক বিশ্বনাথ দাসকে টার্গেট করেই গুলি চালিয়েছিল দুষ্কৃতীরা,তিনি কোনক্রমে প্রাণে বেঁচে যান।বিশ্বনাথবাবুর উপর আক্রমনের চেষ্টা হয়েছে বলে অভিযোগ করার পরেও তিনি নিজে অবশ্য বলতে পারেন নি কেন তাঁর উপর আচমকা আক্রমনের ঘটনা ঘটল।ঘটনার আকস্মিকতায় তিনি বিহ্বল হয়ে পড়লেও,তাঁর দল তৃণমূলের পক্ষ থেকে অবশ্য এই হামলার জন্য এসইউসিআই ও সিপিএমকে দায়ী করা হয়েছে।বলা হয়েছে তাদের যোগসাজসেই এই আক্রমন।তবে শাসক দলের এই দাবিকে উড়িয়ে দিয়ে এসইউসিআইয়ের নেতা ও প্রাক্তন সাংসদ তরুণ নস্কর জানিয়েছেন এই ঘটনা শাসক দলের গোষ্ঠী দ্বন্দ্বের ফল।বিভিন্ন জায়গাতেই এরকম ঘটনা ঘটার পর শাসক দল বিরোধীদের উপর দায় চাপায়.সম্প্রতি নাগের বাজারে বিষ্ফোরণের ঘটনাতেও সেখানকার পুরসভার চেয়ারম্যান অভিযোগ করেছিলেন,তাঁকে টার্গেট করেই বিরোধী বিজেপি বিষ্ফরণের ঘটনা ঘটিয়েছে।তবে এতদিন তদন্তের পরও বিজেপি ঘোগের কোন প্রমাণ মেলেনি।সেখানেও বিরোধীদের অভিযোগ ছিল শাসক দলের অন্দর কলহের জেরেই ঐ ঘটনা ঘটেছিল।রাজ্য জুরে শাসক দলের যে দাপট তাতে তাদের আক্রমণ করতে বিরোধীরা কতটা সাহস করবে তা নিয়ে সব মহলেই সন্দেহ আছে।তবে একের পর এক এই ঘটনায় রাজ্যের প্রশাসনের দুর্বলতা যে সামনে চলে আসছে তা নিয়ে কোন সন্দেহের অবকাশ নেই।