শুরু হতেই হোঁচট খেল বন্দেভারত

চালু হওয়ার একদিন পরই ভারতের সেমি হাইস্পিড ট্রেন বন্দেভারতে যান্ত্রিক ত্রুটির জন্য মাঝপথেই অাটকে গেল। শুক্রবার নয়া দিল্লি রেল স্টেশন থেকে যাত্রার শুরু করার পরের দিন বারাণসী থেকে দিল্লি ফেরার পথে হঠাত্ই থমকে যায় বন্দেভারত।প্রায় ৩ ঘন্টা অাটকে থাকার পর কোন মতে ট্রেনটিকে নয়া দিল্লি রেল স্টেশনে অানা হয়। রেলের তরফে দাবি করা হয় ট্রেনের সামনে গবাদি পশু এসে পড়ায় নাকি চাকায় তা অাটকে যাওয়া এই বিপত্তি। যদিও ট্রেনের সামনের ছবি সেকথা বলছে না বলে জানাচ্ছে এনডিটিভি। ট্রায়াল রানের সময় নানা যান্ত্রিক ত্রুটির কথা মিডিয়া সামনে এসেছিল। সামনেই ভোট। তাই অনেকে বলছেন হয়তো তাই তড়িঘড়ি নয়া দিল্লি থেকে প্রধানমন্ত্রী লোকসভা কেন্দ্র বারাণসী পর্যন্ত এই ট্রেন চালানোর সিদ্ধান্ত নেয় রেল। । দেশে তৈরি প্রথম ইঞ্জিন বিহীন বিদ্যুত চালিত এই ট্রেনের সর্বোচ্চ ১৮০ কিমি গতি সম্পন্ন হলেও প্রথম যাত্রায় ঘন্টায় সর্বোচ্চ ১৩০ কিমি ছুটেছিল বন্দেভারত। স্বাধীনতার ৭২ বছর পরও এখনও এদেশের দূরপাল্লার ট্রেনের গড় গতি ৬৫ থেকে ৭০ কিমি। অথচ সেই রুটে এই হাইস্পিড চালানোর কথা না ভেবে অপেক্ষাকৃত কম দূরত্বের রুটে এই ট্রেন চালানোর সিদ্ধান্ত নিল রেল প্রশাসন। অাজও দেশের এক প্রান্ত থেকে শেষপ্রান্তে সফর করতে ট্রেনে ৩রাত পর্যন্ত সফর করতে হয়। সরকার বা রেল প্রশাসন সে দিকে একটু নজর দেবেন কবে? তাছাড়া শুরুর প্রথমেই বন্দেভারতে যান্ত্রিক ত্রুটি হওয়ায় রেলের মুখ পুড়ল বলে মনে করেছেন অনেকেই।

,