ডিএ মামলার রায় পুনর্বিবেচনা করার রাজ্যের অার্জি খারিজ হাইকোর্টের

রাজ্য সরকারি কর্মীদের ডিএ নিয়ে হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে রাজ্য সরকারের পুনর্বিবেচনার অার্জি বৃহষ্পতিবার( ৭মার্চ ২০১৯) খারিজ করে দিল হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ। গত বছর ৩১ অগস্ট স্যাটের রায় খারিজ করে DA রাজ্য সরকারি কর্মীদের অধিকার  বলে জানিয়ে দেয় হাইকোর্ট। স্টেট অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ ট্রাইব্যুনাল বা স্যাট জানিয়েছিল মহার্ঘ ভাতা বা ডিএ  দয়ার দান সরকার ইচ্ছে হলে দেবে নতুবা নয়। স্যাটের এই রায়ের পর  বকেয়া ডিএ নিয়ে রাজ্য সরকারি কর্মীদের  সংগঠন হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়। প্রায় ১৭ মাস মামলা চলে হাইকোর্টে।  যদি মামলার অন্য দুটি বিষয় স্যাটের কাছেই ফেরত পাঠিয়ে ছিল হাইকোর্ট।  প্রথমত কেন্দ্রীয় কর্মীদের সঙ্গে সমহারে রাজ্য সরকারি কর্মীরা ডিএ পাবেন কিনা? দ্বিতীয়ত চেন্নাই ও দিল্লিতে  পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের  যে সব কর্মীরা চাকরি করেন তাদের কেন্দ্রের সরকারি কর্মীদের মত ডিএ দেওয়া হয় ,তাহলে  রাজ্যের সবসরকারি কর্মীরা তা পাবেন না কেন ? গত ৩১ অগস্ট হাইকোর্ট জানিয়েছিল অাগামী ৩ মাসের মধ্যে এই দুটি বিষয় রায় দিতে হবে স্যাটকে জানিয়েছে হাইকোর্ট। তারপর পার হয়ে গেছে ৫ মাস। এখনও অাদালতের চক্কর খাচ্ছে সেই রায়। কর্মচারীদের একটা অংশ তাই মনে করেন শুধু অাদালতে মামলা নয় রাস্তায় নেমে অান্দোলন না করলে সরকারের কাছ থেকে দাবি অাদায় সম্ভব নয়। বকেয়া ডিএ দেওয়ার ঘোষণা প্রসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী অত্যন্ত অপমানজনক মন্তব্য করেছিলেন এক সময়। মুখ্যমন্ত্রী বলেছিলেন ঘেউ ঘেউ করে লাভ নেই। হাইকোর্টও মুখ্যমন্ত্রীর মন্তব্যকে অত্যন্ত আপত্তিকর ও দুর্ভাগ্যজনক বলে অাগেই মন্তব্য করে।