জেটের দায় নরেশ গোয়েল এড়াতে পারে না

0
20

অাপাতত বন্ধ হচ্ছে জেট এয়ারওয়েজের উড়ান। কর্মীদের বেতন হচ্ছিল না কয়েক মাস। সব মিলিয়ে অথৈজলে ২০ হাজার জেট কর্মচারী। কিন্তু এর জন্য দায়ী কে? কেন জেটের মালিক নরেশ গোয়েলকে ইস্তফা দিয়ে পালিয়ে যেতে পথ করে দেওয়া হল? কেন ঋণগ্রস্ত একটি সংস্থাকে ঋণ দেওয়ার জন্য রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কগুলিকে বলছে সরকার? প্রথমে এসবিঅাই এর নেতৃত্বে বেশ কয়েকটি ব্যাঙ্কের কনসোর্সিয়ামও জেটকে ১৫০০ কোটি টাকা নতুন করে ঋণ দিতে সম্মত হয়। এখন অবশ্য স্টেট ব্যাঙ্ক টাকা ঢালতে রাজি হচ্ছে না। কিন্তু এই সব বিষয়ের মধ্যে সব থেকে বড় যে প্রশ্নটা ধামাচাপা পড়ে যাচ্ছে তা হল জেটের অার্থিক দুরবস্থার জন্য দায়ী যে নরেশ গোয়েল সে কি শুধুমাত্র ইস্তফা দিয়েই কি তাঁর দায় এড়াতে পারেন ? মনে রাখতে হবে বন্ধ হয়ে যাওয়া কিংফিশার এয়ারের বিজয় মালিয়াও এই ব্যাঙ্কের ৯০০০ কোটি টাকা ঋণ নিয়ে হজম করে বিদেশে পালিয়ে ছিলেন। তাই প্রশ্ন উঠছে নরেশ গয়েলকেও কি বাঁচানোর রাস্তা করে দিল কেউ?( জেটের অন্ধকার দিক জানতে পড়ুন A FEAST OF VULTURES – JOSY JOSEPH) যে নরেশ গয়েলের বিরুদ্ধে দাউদ ইব্রাহিমের সঙ্গে যোগাযোগের অভিযোগ উঠেছে তাঁকে এত সহজে রেহাই দিল কেন সরকার? কেন একটি বেসরকারি সরকার সেই বেসরকারি বিমান সংস্থাকে বাঁচাতে ঋণ দেওয়ার জন্য সরকারি ব্যাঙ্কগুলোকে নির্দেশ দিল কেন? এই অনেক কেনোর উত্তর এখনই পাওয়া না গেলেও জেটের কর্মীদের জন্য অাপাতত কিছুটা স্বস্তির খবর।