২৮১ কোটি টাকা উদ্ধার কীসের ইঙ্গিত?

ভ‍‍োট অাসতেই দেশের বিভিন্ন প্রান্তে নগদ ও সোনা উদ্ধারের হিড়িক পড়ে গেছে। তবে যার অধিকাংশটাই বিরোধী দলের সঙ্গে যুক্ত। মধ্যপ্রদেশে কমলনাথের ঘনিষ্ঠদের ডেরায় অায়কর হানা দিয়ে ২৮১ কোটি টাকার অবৈধ টাকা পাচারের হদিশ পেয়েছে বলে দাবি করেছে। তবে অায়করের তরফে দাবি করার অাগেই এই দাবি করে বসেছেন বিজেপ নেতা কৈলাশ বিজয়বর্গীয়। কেন্দ্রীয় সংস্থাগুলোকে বিরোধীদের বিরুদ্ধে ব্যবহারের বিজেপির বিরুদ্ধে অভিযোগ নতুন নয়। তবে প্রশ্ন হচ্ছে যদি বিরোধীদের কাছ থেকে এই বিপুল পরিমাণ টাকা উদ্ধার করা হয় তাহলে শাসকদলের কাছে কী পরিমাণ টাকা রয়েছে তা সহজেই অনুমেয়। অার এই সবই ব্যবহার হবে ভোট কিনতে ভোট করাতে। যা গণতন্তের পক্ষে মোটেই সুখকর নয়। তাতে অবশ্য এদেশের রাজনৈতিকদল গুলোর খুব একটা মাথা ব্যথা অাছে বলে মনে হয় না।