নির্বাচনের প্রথমদিনের পরীক্ষাতেই গণতন্ত্র কি ফেল করল?

পৃথিবীর বৃহত্তর গণতন্ত্রের দেশে বৃহস্পতিবার ছিল এবারের লোকসভার প্রথম পর্যায়ের নির্বাচন।আর সেই নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বিভিন্ন জায়গা থেকে যে সব রিপোর্ট এল তাতে ভরসা করা কঠিন যে নির্বাচন প্রক্রিয়া অবাধ ও সুষ্ঠ হয়েছে।যদিও সাত দফায় ভাগ করে কমিশন চেষ্টা করছে নির্বাচনে পরিচ্ছন্নতা আনতে,কিন্তু তবুও তা হচ্ছে কোথায়! বৃহস্পতিবার দেখা গেল এ রাজ্যের বিভিন্ন বুথে সেই জুলুমবাজির ছবি।সেই ভোট না দিতে দেওয়া,সেই বুথ দখল,সেই শাসক দলের নেতাদের চোখ রাঙানি।তাহলে আর কী পাল্টাল?অন্ধ্রপ্রদেশের একজায়গায় দেখা গেল এক রাজনৈতিক নেতা ভোট মেশিনটাই রেগে গিয়ে ভেঙে দিলেন।সেখানে ভোটের হিংসায় বলি হলেন ১ টিডিপি কর্মী। পশ্চিম উত্তরপ্রদেশেও জনতাকে ছত্রভঙ্গ করতে শূন্যে গুলি ছুড়তে হয়েছে নিরাপত্তা কর্মীদের। এটা একটা খন্ডচিত্র মাত্র। কারণ যেখানকার ছবি দেখা যাচ্ছে সেখানে ক্যামেরা পৌঁছতে পেরেছে,এর বাইরে গ্রাম গঞ্জ জুড়ে অসংখ্য বুথ থাকে যেখানে ক্যামেরা যায় না সেখানকার অবস্থা যে কতটা ভয়াবহ তা বোধকরি একমাত্র ভগবানই বলতে পারবেন।জোর যার ভোট তার বললে বোধহয় গণতন্ত্রকে অপমান করা হয়,কিন্তু তবুও লোকসভা ভোটের প্রথম দিনের যে ছবি বিভিন্ন জায়গা থেকে ধরা পড়ল, তাতে নির্বাচনের প্রথম পরীক্ষাতে গণতন্ত্র যে পাশ করতে পারল সে ভরসা হয় না,তা বলাই বাহুল্য।