মানুষের লাশের পরও ভোট শান্তিপূর্ণ? মুর্শিদাবাদে খুন ১

ভোটে যতক্ষণ না মানুষের লাশ পড়ছে ততক্ষণ ভোট শান্তিপূর্ণ। তৃতীয়দফার ভোটে মুর্শিদাবাদের ভগবানগোলায় নিহত হলেন টিয়ারুল নামে এক ব্যক্তি। কংগ্রেস দাবি করেছে নিহত তাদের দলীয় কর্মী। তৃণমূলের দাবি নিহত নিছকই ভোটার। অন্যদিকে ডোমকলে এক তৃণমূল কাউন্সিলরের স্বামী গুরুতর জখম হয়ে কলকাতার হাসাপাতেল ভর্তি। যেখানে গন্ডগোলের খবর এলো না বলেই সেখানে শান্তিপূর্ণ ভোট হয়েছে এই ধারনার কোন মানে নেই। ঝামেলা করতে হলেও বিরোধী দলে শক্তি প্রয়োজন । সেটা না থাকলে শশ্মানের শান্তিকে শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বলে ভ্রম হতে পারে। তাছাড়া ক্ষমতার অাস্ফালন বা শাসকের টোপও এক ধরনের সন্ত্রাস বটে। যা সারাবছর ধরে চলে। কোন না কোন সরকারি প্রকল্পে নাম নথিভুক্ত করার জন্য সারাবছর অসহায় মুখগুলির পঞ্চায়েত বা কাউন্সিলরদের দরজায় অপেক্ষার ছবি দেখলেই বোঝা যায় এদেশে ভোট কতটা অবাধ ও শান্তপূর্ণ।