একটা ডিম বেশী চাওয়াতে পড়ুয়ার প্যান্টের মধ্যে গরম খিচুরি ঢেলে দিল অঙ্গনওয়ারি কর্মী,অমানবিকতার চরম নিদর্শন মূর্শিদাদের এক স্কুলে

0
1

মিড ডে মিলে খিচুরির সঙ্গে দেওয়া হচ্ছিল একটা করে ডিম।ছোট্ট পড়ুয়া ছেলেটি একটা বেশী ডিম খেতে চেয়েছিল,এই ‘অপরাধে’তার প্যান্টের মধ্যে গরম খিচুারি হাতায় করে নিয়ে ঢেলে দিয়েছে অঙ্গনওয়ারি এক কর্মী এই অভিযোগে রীতিমত সরগরম মূর্শদাবাদের রঘুনাথগঞ্জের এক প্রাথমিক স্কুল।পড়ুয়া ছেলেটির শরীরের নীচের অনেকটা অংশ পুড়ে গেছে বলে জানা যাচ্ছে।তাকে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।ছাত্রটির পরিবার থেকে অভিযোগ করা হয়েছে,সকালে বাড়িতে কিছু না খেেয়ে চলে আসায় বেশী ক্ষিদে থাকায় একটা বেশী ডিম সে চেয়েছিল,আর তাতেই মিড ডে মিল দেওয়ার দায়িত্বে থাকা এক মহিলা এক হাতা গরম খিচুরি ছেলেটির প্যান্টের মধ্যে ঢেলে দেয়।এরপর যন্ত্রনায় কাঁদতে কাঁদতে বাড়ি চলে যায় ছেলেটি।বাড়িতে প্রথমে মাকে সে কিছু বলতে চায় নি,কিন্তু যন্ত্রনা বাড়তে থাকায় সব বলে মাকে,ছেলেকে হাসপাতালে ভর্তি করিয়ে স্কুলে গিয়ে অভিযোগ করে ঐ ছাত্রের মা।পুলিশ স্কুলের ঐ অঙ্গনওয়ারি কর্মী ও স্কুলের শিক্ষকদেরও জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছে বলে খবর।এমন চরম অমানিবিকতার প্রদর্শন একজন মহিলা করেছে জানতে পেরে সকলেই বিশ্ময় প্রকাশ করছেন।আমাদের সামাজিক স্তরে যে কতটা অমানবিকতা ও হৃদয়হীনতা জায়গা করে নিচ্ছে এই ঘটনা বোধহয় তারই প্রমাণ।