‘দাদা দিদির’ প্রতিনিধি নয় নিজের প্রতিনিধি বাছতে বলছেন নন্দিনী-কণীনিকারা

কেউ বলছেন তিনি সরাসরি দিদির প্রতিনিধি,কেউ আবার বলছেন তিনি প্রধানমন্ত্রীর প্রতিনিধি,তৃণমূল ও বিজেপির প্রার্থীরা যখন রাজ্যের মানুষের কাছে গিয়ে এইভাবে ভোট চাইছেন তখন সিপিআইএমের নন্দিনী মুখার্জী ও কণীনিকা ঘোষ বোসুর আবেদন মানুষ তাদের নিজের প্রতিনিধি বেছে নিন।এই আবেদন নিয়েই তাঁরা এলাকায় এলাকায় ঘুরছেন বলে দাবি করলেন দুই মহিলা বাম প্রার্থী।নন্দিনীর দাবি তাঁর দক্ষিণ কলকাতা এলাকায় বিগত একদশকেরও বেশী সাংসদের কোন ভূমিকা দেখা যায় নি,মানুষের প্রয়োজনে সাংসদ সক্রিয় হন নি।মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই এলাকার সাংসদ হলেও গোটা রাজ্য নিয়ে ব্যস্ত থাকায় তিনি এলাকার উন্নয়নে ও প্রয়োজনে সময় দিতে পারেন নি।পরে যিনি সাংসদ হয়েছেন তিনিও কোন সক্রিয়তা দেখাননি এলাকার মানুষের স্বার্থে,তাই এবার মানুষ তাঁদের নিজেদের প্রার্থী বাছবেন বলেই নন্দিনী মুখার্জীর বিশ্বাস।একই রকমভাবে উত্তর কলকাতার বাম প্রার্থী কণীনিকা ঘোষ বসুর দাবি যে সাংসদ চিটফান্ড মামলায় জেল খাটেন তাকে বাদ দিয়ে মানুষ এবার বামদের দিকেই ঝুঁকবেন।বিজেপি ও তৃণমূলকে একই মুদ্রার এপিঠ ওপিঠ বলে কটাক্ষ করে নন্দিনীদের অভিযোগ মিডিয়া বামদের অস্তিত্বহীন করে দিলেও সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে ও মানুষের দৈনন্দিন প্রয়োজনের জন্য বামপন্থীরাই রাস্তায় থাকবেন।