মুখ্যমন্ত্রী পদের বিজেপির মুখ দিলীপ ঘোষ? জল্পনা তুঙ্গে

0
1

২০২১ এ এরাজ্যে ক্ষমতায় এলে দিলীপ ঘোষই মুখ্যমন্ত্রী হতে পারেন বলে বিজেপি সূত্রে খবর। আরএসএসের মতকে মেনে নিয়ে বিজেপির শীর্ষ নের্তৃত্ব এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত চুড়ান্ত করে ফেলেছে বলে বিজেপির একটি সূত্র জানাচ্ছে।দিলীপ ঘোষ একসময় আরএসএসের সক্রিয় সদস্য ছিলেন।আরএসএসের অনুমোদন নিয়েই তিনি রাজনীতিতে আসেন।এ রাজ্যের দায়িত্ব নিয়ে তিনি বিজেপিকে যে অভাবনীয় সাফল্য দিয়েছে তা মেনে নিতে বাধ্য হয়েছেন বিজেপির শীর্ষ নেতারা। রাজ্যে বিজেপির সাংগঠনিক শক্তি বৃদ্ধিতে আরএসএসের ভূমিকাকে কোন ভাবেই অস্বীকার করতে পারে না বিজেপি। মূলত আরএসএসের কর্মীরাই রাজ্যজুড়ে পরিবর্তনের ডাক দিয়ে কাজ করতে শুরু করেন। জেলায় জেলায় তারাই বিজেপির সহায়ক শক্তি।তাই এ রাজ্যে যখন ২০২১ এর বিধানসভার জন্য প্রধান মুখ খুঁজে পাওয়ার চেষ্টা শুরু হয় তখন থেকেই আরএসএসের চাপ ছিল এমন একজনকে মুখ করা হোক যে আরএসএসের কাছের লোক।এই সূত্রেই দিলীপ বাবুর নাম উঠে আসে।আরএসএস চায় দিলীপ ঘোষকেই মুখ করা হোক।সম্ভাব্য মুখ্যমন্ত্রী হিসেবেও দিলীপ ঘোষকেই চায় আরএসএস।যক্তি হিসেবে বলা হয়,প্রতিকুল পরিস্থিতিতেও তিনি যেভাবে নির্বাচনে জিতে এসেছেন এবং রাজ্যজুড়ে বিজেপিকে লড়াইয়ের জায়গায় নিয়ে গেছেন সে কৃতিত্ব আর কারোর নেই।আরএসএসের এই যুক্তিকে মেনে নিতে চলেছে বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্ব,এমনটাই খবর।

দিল্লীর নেতারা আগামি সেপ্টম্বরেই এ রাজ্যের নতুন নেতৃত্বের নাম জানিয়ে দেবেন,সেখানে দিলীপ ঘোষ আবার রাজ্য সভাপতির পদে থাকতে চলেছেন বলে খবর।দিলীপ ঘোষকে সামনে রেখেই ২০২১ এর লড়াই এ রাজ্যে হবে তা মোটামুটি পরিষ্কার।আরএসএসের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে এ রাজ্যে অল্পদিনের মধ্যেই দিলীপবাবু যেভাবে নিজেকে পরিচিত করেছেন,তাতে তাঁকে মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী ভাবাটা কোন অস্বাভাবিক ব্যপার বলে কারেরই মনে হবে না।তিনি কর্মীদের সামনে থেকে লড়াই করতে আহ্বান রাখার উপযুক্ত।আরএসএসের এই দাবি মেনে নিয়ে দিলীপ ঘোষকেই এ রাজ্যের আগামী মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে প্রোজেক্ট করতে চলেছে বিজেপির দিল্লির নেতারা।বিজেপির রাজ্য নেতারা এই বিষয়টা সবাই কমবেশী জেনেও ফেলেছেন।

দিলীপ ঘোষের পাশাপাশি মকুল রায়ও শোভন চট্টোপাধ্যায়কেও সংগঠনিক দায়িত্ব দেওয়া হচ্ছে বলে খবর,তবে বিজেপির অন্দর মোহলে এতদিন দিলীপ ঘোষ বিরোধী গোষ্ঠী বলে পরিচিত মুকুল রায়ের অনুগামিরা এবার কী করেন তা নিয়ে কৌতুহল রয়েছে সব মহলে।মনে করা হচ্ছে কৌশল নির্ধারনে বড় ভূমিকা নিলেও সরাসরি রাজ্য বিজেপির রাশ কোনভাবেই মুকুল রায়ের হাতে থাকবে না। এ রাজ্যে আরএসএস যেভাবে বিজেপিকে নিয়ন্ত্রণ করে তাতে তাদের ইচ্ছেকে উপেক্ষা করে যে কোন নেতাকে দিল্লি চাপিয়ে দিতে পারবে না। দিলীপ ঘোষকে ২০২১ এর প্রধান মুখ বলে মেনে নিয়ে বিজেপি বোধহয় সে কথাই নিরুচ্চারে রাজ্য বিজেপিকে জানিয়ে দিতে চলেছে বলে অনেকে মনে করছেন।