ফুটপাথ থেকে ফোর্বস থার্টিতে- রূপকথার উড়ান

এ যেন কোন রূপকথার গল্প। ১১ বছর বয়সে বাড়ি থেকে পালিয়ে দিল্লির রাস্তায় দিন কাটানো। তার পর সেখান থেকে ফোর্বস এশিয়ার ‘থার্টি অান্ডার থার্টি’র তালিকায় নাম। চিত্রগ্রাহক ভিকি রায়ের এই কাহিনী এখন ভাইরাল। হিউম্যান অফ বোম্বের ফেসবুক পাতায় ভিকির বেড়ে ওঠার , বড় হওয়ার কাহিনী ছুয়ে গেছে অনেক মনকে। ১১ বছর বয়সে বাড়ি থেকে পালিয়ে দিল্লিতে চলে অাসা। তার পর কখন নোংরা কুড়িয়ে , খেয়ে না খেয়ে দিন কাটান। একদিন এক সহৃদয় চিকিত্সকের হাত ধরে সালাম বালক নামে এক এনজিও র কাছে পৌঁছে যাওয়া। ৩ বেলা খেতে পাওয়া ও ১৮ বছর বয়সে ৪৯৯ টাকার দামের একটি ক্যামেরা হাতে পাওয়া। সেই সঙ্গে স্থানীয় এক চিত্রগ্রাহকের কাছে কাজ শেখার সুযোগ। বাকিটা ইতিমহাস।

সবাই ভিকি হয়ে উঠতে পারেন না। প্রতিভা থাকলেও পারেন না।ঠিক সময় ঠিক জিনিসটার সন্ধান পাওয়ায় জরুরি। তার মানে এই নয় ভিকির লড়াইটা অসাধরণ নয়। অসাধরণ। কিন্তু অসংখ্য ভিকি সমাজ হারায়। কারণ সেই প্রতিভাকে ঘষামাঝা করে ঝকঝক করে তোলার মত পরিকাঠামো বা সমাজ এখন অামরা গড়ে তুলতে পারিনি।