এবিভিপির মিছিল আটকাল পুলিশ প্রতিরোধের বলয় নিয়ে তৈরি যাদবপুরও

0
21

উত্তেজনার রসদ ছিল যথেষ্টই।একদিকে এবিভিপির ঘোষণা ছিল তারা সোমবার বাবুল সুপ্রিয়র হেনস্থার প্রতিবাদে মিছিল করবে যাদবপুর ক্যাম্পাস এলাকায়।অন্যদিকে যাদবপুরের প্রতিবাদী ছাত্রদের দাবি ছিল তারা কোনভাবেই সাম্প্রদায়িক শক্তির মদত দাতা আরএসএসের পান্ডা এবিভিপিকে যাদবপুরে উত্তেজনা ছড়াতে দেবে না।সোমবার তাই পুলিশ প্রশাসনের কাছে একটা শক্ত পরীক্ষার দিন ছিল।এদিন দুপুর একটা নাগাদ গোলপার্ক থেকে এবিভিপির মিছিল শুরু হয়ে যাদবপুরের দিকে আসার আগেই সেলিমপুরে তা আটকে দেয় পুলিশ প্রশাসন।পুলিশের ব্যরিকেড ভেঙে আর এগুতে পারে নি এবিভিপির কর্মী সমর্থকরা।তারা মাটিতে বলে পড়েন।ব্যারিকেড ভাঙতে তাতে লাথি ও ডান্ডা দিয়ে আঘাত করতে থাকেন।পুলিশের সঙ্গে একসময় তাদের ধস্তা ধস্তিও শুরু হয়।পুলিশের দিকে ইঁট ও বোতল ছোঁড়ার অভিযোগও উঠে।

এবিভিপির কর্মীও সমরর্থকদের অভিযোগ রাজ্য সরকার দেশদ্রোহী কমিউনিষ্ট ছাত্রদের মদত দিচ্ছে।তাদের শান্তিপূর্ণ মিছিলকে বাঁধা দিয়ে যাদবপুরের দেশদ্রোহীদের প্রটেকশন দেওয়ার ব্যবস্থা হচ্ছে।অন্য দিকে সকাল থেকেই যাদবপুর এলাকায় ছাত্ররা হাতে হাত দিয়ে মানবপ্রাচীর করে প্রতিরোধের বলয় গড়ে তুলেছেন বলে দাবি করেন।যাদবপুরের প্রতিবাদী ছাত্রছাত্রীদের দাবি আরএসএসের সাম্প্রদায়িক রাজনীতি থেকে যাদবপুরকে রক্ষা করতে তারা শেষ পর্ষন্ত লড়তে থাকবেন।উত্তেঝনা থাকলেও এখনও পর্যন্ত কোন অপ্রিতীকর ঘটনার খবর নেই।