জেট বন্ধ হওয়ার ৪ মাস পর নরেশ গোয়েল কে জেরা ইডির

0
32

বিদেশি মুদ্রা অাইন লংঘনের বিষয় জেট এয়ারওয়েজের প্রতিষ্ঠাতা নরেশ গোয়েলকে জেরা করল ইডি।জেট বন্ধ হয়েছে বেশ কয়েক মাস হয়ে গেল। এই প্রথম ইডির সময় হল নরেশ গোয়েলকে জেরা করার। ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের রিপোর্ট অনুযায়ী, সূত্রের খবর বিমান লিজের নাম করে বিদেশে নিজের ৫টি কোম্পানিকে  টাকা পাচার করেছে নরেশ গোয়েল। গত মার্চ মাসে গোয়েল জেট ছাড়েন। পরের মাসেই বন্ধ হয়ে যায় জেট। কর্মহীন হয়ে পড়েন ২০ হাজার কর্মী। ইতিমধ্যেই কেন্দ্রীয় সরকারের কোম্পানি বিষয়ক মন্ত্রকের তরফে প্রতারণার তদন্তের  জেরে বেশ কয়েকবার  sfio  জেরা করেছে নরেশ গোয়েলকে। তদন্তে বিস্তর গড়মিল ও টাকা পাচার ধরা পড়ে। তারপরও বহাল তবিয়তে ঘুরে বেড়াচ্ছেন নরেশ গােয়েল।

কর্মীদের বেতন নেই । অথৈজলে ২০ হাজার জেট কর্মচারী। কিন্তু এর জন্য দায়ী যে সেই জেটের মালিক নরেশ গোয়েলকে ইস্তফা দিয়ে পালিয়ে যেতে পথ করে দেওয়া হল? কেন ঋণগ্রস্ত একটি সংস্থাকে ঋণ দেওয়ার জন্য রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কগুলিকে বলছে সরকার? প্রথমে এসবিঅাই এর নেতৃত্বে বেশ কয়েকটি ব্যাঙ্কের কনসোর্সিয়ামও জেটকে ১৫০০ কোটি টাকা নতুন করে ঋণ দিতে সম্মত হয়। পরে পিছিয়ে অাসে স্টেট ব্যাঙ্ক।  কিন্তু এই সব বিষয়ের মধ্যে সব থেকে বড় যে প্রশ্নটা ধামাচাপা পড়ে যাচ্ছে তা হল জেটের অার্থিক দুরবস্থার জন্য দায়ী যে নরেশ গোয়েল সে কি শুধুমাত্র ইস্তফা দিয়েই কি তাঁর দায় এড়াতে পারেন ? মনে রাখতে হবে বন্ধ হয়ে যাওয়া কিংফিশার এয়ারের বিজয় মালিয়াও এই ব্যাঙ্কের ৯০০০ কোটি টাকা ঋণ নিয়ে হজম করে বিদেশে পালিয়ে ছিলেন। তাই প্রশ্ন উঠছে নরেশ গয়েলকেও কি বাঁচানোর রাস্তা করে দিল কেউ?( জেটের অন্ধকার দিক জানতে পড়ুন A FEAST OF VULTURES – JOSY JOSEPH) যে নরেশ গয়েলের বিরুদ্ধে দাউদ ইব্রাহিমের সঙ্গে যোগাযোগের অভিযোগ উঠেছে তাঁকে এত সহজে রেহাই দিল কেন সরকার? কেন একটি বেসরকারি সরকার সেই বেসরকারি বিমান সংস্থাকে বাঁচাতে ঋণ দেওয়ার জন্য সরকারি ব্যাঙ্কগুলোকে প্রথমে বলা হয়েছিল ?