গত লোকসভা ভোটে evm ও vvpat রক্ষণাবেক্ষণে যুক্ত ছিলেন বেসরকারি ইঞ্জিনিয়াররা

0
21

নির্বাচন প্রক্রিয়ার কাজ বা প্রক্রিয়াতে কোন রকম বেসরকারি সংস্থার অংশগ্রহণের বিষয়টি এতদিন নাকচ করে অাসছিল নির্বাচন কমিশন। কিন্তু একটি বেসরকারি নিউজ ওয়াবসাইটের তদন্তে ধরা পড়েছে এর উল্টোটা। RTI বা তথ্য জানার অধিকার অাইনের জেরে পাওয়া তথ্য থেকে দেখা যাচ্ছে EVM ওVVPAT নির্মাতা রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা ECIL কনসালটেন্ট হিসাবে বেসরকারি ইঞ্জিনিয়ারদের নিয়োগ করেছে। ২০১৭ বিধানসভা ও ২০১৯ সালের লোকসভা ভোটের সময় ওই সব বেসরকারি ইঞ্জিনিয়াররা নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে কাজ করেছিলেন।

এই সব ইঞ্জিনিয়রা EVM ওVVPAT রক্ষণাবেক্ষণের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন ভোটের প্রথম দিন থেকে। এমনকি গণনার দিন পর্যন্ত। এই সব বেসরকারি ইঞ্জিনিয়ারদের ECIL নিযুক্ত করেছিল নির্বাচন কমিশনের হয়ে একটি মুম্বই সংস্থার মাধ্যমে।যদিও এরকম কিছু হওয়ার কথা অস্বীকার করেছে নির্বাচন কমিশন। প্রশ্ন উঠছে নির্বাচন কমিশনের কাজে ECIL বেসরকারি ইঞ্জিনিয়ার নিযুক্ত করার বিষযটি কি একদমই জানতো না নির্বাচন কমিশন? EVM এর নিরপেক্ষতা নিয়ে বিরোধীরা বারবার প্রশ্ন তুললেও কেন এই বিষয়টি যাচাই করেনি নির্বাচন কমিশন?QUINT এ প্রকাশিত এই রিপোর্ট যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ। একে ফুতকারে উড়িয়ে দিলে নির্বাচন কমিশনের বিশ্বাসযোগ্যতা নিয়ে যে সংশয় শুরু হয়েছে তা বাড়বে বই কমবে না।