মমতার বাড়ি গিয়ে ভাইফোঁটা শোভনের, প্রাক্তন মেয়রের তৃণমূলে ঘরওয়াপসি নিয়ে জল্পনা তুঙ্গে

0
22
 মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাড়িতে গিয়ে ভাইফোঁটা নিলেন বিজেপি নেতা শোভন চট্টোপাধ্যায়। শোভনবাবুর এই ভাইফোঁটা পর্বে সঙ্গে ছিল বান্ধবী বৈশাখি বন্দ্যোপাধ্যায়ও।গতবার অবশ্য তৃণমূলে থাকা সত্ত্বেও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাড়িতে ভাইফোঁটা নিতে যাননি শোভনবাবু। বরং বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কার্যত মিথ্যাবাদী বলেছিলেন শোভন চট্টোপাধ্যায়। সংবাদমাধ্যমে দেওয়া সাক্ষাত্কারে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে সত্ মা বলে কটাক্ষ করেন বৈশাখি দেবী। শোভনবাবুর এইদিনের ফোঁটা নিয়ে অন্যকিছু ভাবতে নারাজ বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। দীর্ঘদিনের সম্পর্ক, সামাজিক অনুষ্ঠানে যেতেই পারেন শোভনবাবু, সংবাদমাধ্যমে প্রতিক্রিয়া এমনই জানিয়েছেন দিলীপ ঘোষ।
দিল্লিতে গিয়ে নাটকীয়ভাবে শোভন বৈশাখির বিজেপিতে যোগদানের পর থেকে নাটক অব্যাহত। সূত্রপাত দেবশ্রীর বিজেপিতে যোগ দেওয়া নিয়ে। তার পর একটি দলীয় অনুষ্ঠানে অামন্ত্রণপত্রে বৈশাখিদেবী নাম না থাকায় যোগদানের শুরুতে ছন্দপতন। তার পর থেকে নানা কটূক্তির জেরে  বৈশাখিদেবী একসময় সংবাদমাধ্যমে মন্তব্য করেন তৃণমূলে থাকাকালীন যা তাঁকে শুনতে হয়নি এখন তা শুনতে হচ্ছে। এরই মধ্যে কয়েকদিন অাগে পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের বাড়িতে বিজয়া করতে যান বৈশাখি দেবী। অার তার পরই শোভনের ভাইফোঁটা। ফলে শোভন চট্টোপাধ্যায়ের তৃণমূলে ফেরার ইঙ্গিত স্পষ্ট।
কে কাকে ভাইফোঁটা দেবেন বা নেবেন তা সম্পূর্ণ ব্যক্তিগত বিষয়। তবে শোভনবাবুর ভাইফোঁটাতে রাজনীতির ছিটে যে নেই তা বলা মুশকিল। অার তাই জল্পনা শুরু। কবে তৃণমূলে ফিরছেন শোভন চট্টোপাধ্যায়। সংসদীয় রাজনীতিতে মূল্যবোধ,নীতি এসব নিয়ে খুব একটা কেউ মাথা ঘামান না এখন।সবাই মুখে ওসব বলেন ঠিকই।সময়মত রঙবদলও করেন। ফলে শোভনবাবু যদি তৃণমূলে ফেরেন তা হলে অবাক হওয়ার কিছু নেই।ভোটের বাজারে সবই সম্ভব।

ছবি ফাইল