৩০ অক্টোবর পর্যন্ত ED হেফাজতে চিদম্বরম

0
12

INX দুর্নীতি CBI মামলায় মঙ্গলবার চিদম্বরমকে জামিন  দেয় সুপ্রিম কোর্ট। তবে এখনই ছাড়া পাচ্ছেন না তিনি। বৃহষ্পতিবার  ইডি মামলায় তার হেফাজতের মেয়াদ  ৩০ অক্টোবর পর্যন্ত  বৃদ্ধি করল অাদালত। অন্তত ওই সময় পর্যন্ত ইডি হেফাজতে থাকতে হবে তাঁকে। ৪ নভেম্বর ইডি মামলায় হাইকোর্টে চিদম্বরমের জামিনের অার্জির শুনানি হবে।

গত ৩০ সেপ্টেম্বর সিবিঅাই করা মামলায় প্রাক্তন অর্থমন্ত্রীর জামিনের অার্জি খারিজ করে হাইকোর্ট জানিয়েছে চিদম্বরম প্রমাণ নষ্ট করতে না পারলেও সাক্ষীদের প্রভাবিত করতে পারেন। হাইকোর্টের এই রায় এদিন খারিজ করে দেয় সর্বোচ্চ অদালতের ৩ সদস্যের বেঞ্চ। তবে অাদালতের অনুমতি ছাড়া বিদেশ যেতে পারবেন না প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী জানিয়েছে সর্বোচ্চ অাদালত। গত ৫ সেপ্টেম্বর থেকে তিহাড় জেলে ছিলেন চিদম্বরম। এখন ইডির হেফাজতে রয়েছেন তিনি।

 ২১ অগস্ট নাটকীয়ভাবে চিদম্বরমকে গ্রেফতার করে সিবিঅাই।  । সবাইকে চমকে দিয়ে ২১ অগস্ট  রাত ৮ টা নাগাদ দিল্লিতে কংগ্রেস সদর দফতরে হাজির হয়ে নিজের সাফাই দেন চিদম্বরম। এর পর নাটকীয় ঢঙে রাত ১০টা নাগাদ দিল্লির বাড়ি থেকে চিদম্বরমকে গ্রেফতার করে সিবিঅাই। ২০১০ সালে পি চিদম্বরম স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী থাকাকালীন বর্তমান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে গ্রেফতার করেছিল সিবিঅাই। সোরাবুদ্দিন শেখ ভুযো সংঘর্ষে হত্যা মামলায় ২০১০ সালে গ্রেফতার হন অমিত শাহ। রাজনৈতিক মহলের অনেকে মনে করেন দুটো ঘটনার মধ্যে সম্পর্ক রয়েছে।

সময়টা ২০০৭ সাল। ইউপিএ সরকারের অর্থমন্ত্রী ছিলেন পি চিদম্বরম। পিটার মুখার্জি ও ইন্দ্রাণি মুখ্যার্জির চ্যানেল INX মিডিয়ার ৩০৫ কোটি টাকার বিদেশি বিনিয়োগ তোলে। সরকারি নিয়ম অনুযাযী সেই সময় তাদের ৪ কোটি টাকার বিদেশি বিনিয়োগ নেওয়ার অনুমোদন থাকলেও তারা সংগ্রহ করেছিল ৩০৫ কোটি টাকা। আর এই বেনিয়মকে আড়াল করতে কার্তি চিদাম্বরম নাকি ঘুষ নিয়েছিলেন ১০ লক্ষ টাকা। তবে ঘুরপথে নাকি সাড়ে ৩ কোটি টাকার একটা অংশও পেয়েছেন কার্তি। ইতিমধ্যে কংগ্রেসের এই লোকসভার সদস্য জেলেও ছিলেন বেশকিছু দিন। এখন জামিনে মুক্ত। ছেলেকে ঘুষ পাইয়ে দিতেই নাকি চিদম্বরম এই বিনয়মে অনুমতি দিয়েছিলেন । অন্তত এমনটাই সিবিঅাই চার্জশিটে অভিযোগ করা হয়েছে।