তেলেঙ্গানার বাস কর্মীদের ধর্মঘটের সমর্থনে অামেরিকায় টিঅারএস সাংসদকে বিক্ষোভ

0
8
মঙ্গলবার ৩৯দিনে পড়ল তেলেঙ্গানার অারটিসি বাস ধর্মঘট।  এখনও অচলাবস্থা কাটার কোন লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না ।  অার  এর  জেরেই অামেরিকার ওয়াশিংটনে অনাবাসী ভারতীয়দের এক সভায় বিক্ষোভের মুখে পড়লেন তেলেঙ্গানার টিঅারএস সাংসদ   বিনোদ কুমার। তেলেঙ্গানা ডেভলপমেন্ট ফান্ডের এক সভায় এনঅারঅাইদের অারটিসিকে বাঁচানোর দাবিতে প্ল্যাকার্ড হাতে  সাংসদকে বিক্ষোভ দেখানোর ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ইতিমধ্যেই ভাইরাল। কোন রাজ্যের ধর্মঘটের সমর্থনে অামেরিকায় সরকারি সভায় নজিরবিহীন ঘটনা।
  অারটিসি কর্মীদের রাজ্য সরকারি হিসাবে  স্বীকৃতি সহ একগুচ্ছ দাবিতে ১ মাসের বেশি সময় ধরে ধর্মঘট করছেন অারটিসির ৪৮ হাজার বাস কর্মী। ইতিমধ্যেই ৪জন বাসকর্মী অাত্মহত্যাও করেছেন।   ধর্মঘটে   থাকা ৪৮ হাজার বাস কর্মীর সঙ্গে অালোচনা তো দূরের কথা ৫০০০ সরকারি বাসরুট বেসরকারিকরণের  হুঁশিয়ারি দিয়ে বসেছেন মুখ্যমন্ত্রী কেসিঅার।
৪৮ হাজার অারটিসি কর্মীর সেপ্টেম্বর মাসের বেতন পর্যন্ত দেয়নি সংস্থা।।  টিএসঅারটিসি অাদালতকে জানিয়েছে সেপ্টেম্বরের বেতন দেওয়ার জন্য প্রয়োজনীয় ২২৪ কোটি টাকা তাদের কাছে নেই। রাজ্য সরকারও হাত উপুড় করে দিয়েছে। যদি ২০১৫ সালে ১৫ কোটি টাকা সরকারি অর্থ খরচ করে যজ্ঞ করার সময় কেসিঅার এর টাকার অভাব হয়নি। মুখ্যমন্ত্রী তিরুমালার ভেঙ্কটেশ্বর মন্দিরে ৫ কোটি টাকার সোনার গয়না  দান করার সময় রাজকোষের কথা ভাবেননি। এই তালিকা অারো দীর্ঘ। শুধু তাই নয়, ৫০০ কোটি টাকার বাজেটে মুখ্যমন্ত্রী অাবাস নির্মাণের জন্য  ইতিমধ্যেই ৩৫ কোটি টাকা খরচ করতেও অসুবিধা হয় না সরকারে। শুধু টাকা নেই ৪৮ হাজার অারটিসি বাস কর্মীর জন্য। অামেরিকায় রাজ্য সরকারের ছবি উজ্জ্বল করার জন্য সভা করতে গিয়েছিল রাজ্য সরকার।  অারটিসি বাস কর্মীদের ধর্মঘটে সরকারের অবস্থান যা তাতে ছবি উজ্জ্বল হওয়া তো দূরের কথা মুখ  পুড়লো কেসিঅারের। ভিডিও লিঙ্কটি নীচে দেওয়া হল।
https://twitter.com/i/status/1193980901966770177