জঙ্গি অাঁতাঁতে DSP দেবেন্দ্র সিংকে গ্রেফতার করা হলেও মিলছে না অনেক উত্তর

0
112

সাতদিন ডেস্কঃ জঙ্গিদের গন্তব্যে নিরাপদে পৌঁছে দিতে গিয়ে  জম্মু কাশ্মীরের   DSP দেবেন্দ্র সিং ধরা পড়ায় ফের অাফজল গুরুর নাম সমানে চলে এসেছে। সংসদ হামলায় দোষী সাব্যস্ত অাফজল জানিয়েছিলেন এই দেবেন্দ্র সিংই তাকে জঙ্গিদের দিল্লিতে পৌঁছে দিয়ে একটি পুরনো গাড়ি কিনে দিতে বলেছিলেন। ২০০১ সালের ১৩ ডিসেম্বর  সংসদ হামলার দিন  অাফজল দিল্লিতে না থাকলেও তাকে দোষী সাব্যস্ত করে ২০১৩ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে অাদালত ফাঁসি দেয়। অথচ অাফজলের কথা সেই সময় পুলিস থেকে গোয়েন্দা সংস্থা কেই কানে তোলেনি। এহেন দেবেন্দ্র সিং যাকে পরে পুরস্কার  দেয় সরকার তাকে গ্রেফতার করা হল। অনেকে বলছেন সরকার তো এই ঘটনা চেপেও যেতে পারতো। এরকমতো নয় সরকার বা এদেশের মন্ত্রীদের বিরুদ্ধে ভুয়ো সংঘর্ষের কোন অভিযোগ নেই। তাহলে কেন দেবেন্দ্র সিং এর গ্রেফতারের ঘটনা ঘটা করে জানান হল। এটা অন্য কথা মিডিয়া সেরকমভাবে চড়া সুরে তা প্রচার করছে না। কিন্তু প্রচার তো হচ্ছে যে অাফজল গুরু যার নামে অভিযোগ করেছিল  সেই  দেবেন্দ্র সিং ২০০১ সালে সেই পুলিসের সঙ্গে জঙ্গিদের অাঁতাঁতা স্পষ্ট।

এখন প্রশ্ন উঠছে এতদিন ধরে দেবেন্দ্র সিং এই কারবার করছিল পুলিস বা গোয়েন্দারা তা জানতেন না? দেবেন্দ্র সিং  কি শুধুই অর্থের জন্য এসব করতেন নাকি অারো অন্য কোন টোপ ছিল? যদি দেবেন্দ্র অন্যদের হয়ে কাজ করতেন তাদের কাছে কি দেবেন্দ্র  প্রয়োজন  ফুরিয়ে এসেছিল ? মাথা কারা? দেবেন্দ্র সিং এর গ্রেফতার কি নিতান্তই  নিরাপত্তা বাহিনীর সাফল্য নাকি এর পিছনে রয়েছে অন্য কোন ষড়যন্ত্র? এই প্রশ্নের উত্তর পাওয়া অত্যন্ত জরুরি। কারণ প্রায় ১৮ -২০ বছর অাগে যে পুলিস অফিসার নাম জঙ্গিদের সঙ্গে জড়িত থাকার বিষয় ওঠে, তাঁকে গ্রেফতার করা হল এখন।

রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে দেবেন্দ্র সিং এর গ্রেফতার অনেকগুলি প্রশ্নকে ফের সামনে নিয়ে এলো। সরকারের অস্বস্তি বাড়ল না অন্য কোন অস্বস্তিকে চাপা দেওয়ার চেষ্টা চলছে তার উত্তরের জন্য অপেক্ষা করতে হবে অামাদের। তবে এটা নিশ্চিত দেবেন্দ্র সিং নিজে একা এতদিন ধরে এই অপারেশন চালিয়ে যেতে পারেন না। এর পিছনে রয়েছে বড় কোন মাথা। কানটা টানলেই যে মাথা অাসবে এমন কোন গ্যারান্টি কিন্তু নেই। তাই দেবেন্দ্র করে বলির পাঁঠা করে অন্য কেউ বা কারা অন্য কোন খেলা খেলছে না তো?