দিলীপ ঘোষের গুলি করে খুন করার নির্দেশ পালন করছেন নাকি মমতার বাহিনি, জলঙ্গির ঘটনায় প্রশ্ন সিপিএম নেতা মহম্মদ সেলিমের

0
76

সাতদিন ডেস্কঃ- বিজেপি নেতা দিলীপ ঘোষের নির্দেশ পালন করছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাহিনী।জলঙ্গিতে সিএএ বিরোধিতায় বনধ করতে গিয়ে যেভাবে তৃণমূল বাহিনীর গুলিতে  মানুষের প্রণহানির অভিযোগ উঠেছে তার প্রেক্ষিতে এভাবেই প্রতিক্রিয়া দিলেন সিপিএমের পলিটব্যুরো সদস্য মহম্মদ সেলিম।

সিএএ বিরোধিতা করতে গিয়ে যারা সরকারি সম্পত্তি নষ্ট করছে তাদের কুকুরের মত গুলি করে খুন করার নিদান দিয়েছিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।সপ্তাহ খানেক আগে বিজেপির রাজ্য সভাপতির প্রকাশ্য সেই হুঙ্কার নিয়ে রাজ্য রাজনীতিতে চাঞ্চল্য পড়েছিল।দিলীপ ঘোষের সেই অসাংবিধানিক ও আইন বিরুদ্ধ মন্তব্যের জন্য তার বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ গ্রহণের হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন সিপিএম নেতা মহম্মদ সেলিম।

বুধবার জলঙ্গির ঘটনা নিয়ে বলতে গিয়ে এই বাম নেতা বলেন,’মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বিধানসভায় এনআরসি এনপিআর সিএএ বিরোধি প্রস্তাব পাশ করিয়ে বলেন তিনিই নাকি মোদী বিরোধী লড়াইয়ে এক নম্বর ব্যক্তি,আবার বামপন্থীরা যখন গোটা দেশে এআরসি সিএএ বিরোধিতাকে অন্যতম ইস্যু করে ধর্মঘটের ডাক দেয় তখন তিনি তার সর্বাত্মক বিরোধিতা করতে পুলিশ পর্যন্ত লেলিয়ে দেন।এ রাজ্যে বামেরা সরকারি সম্পত্তি নষ্ট করেছে এই অভিযোগ তুলে সিএএ বিরোধী সর্বভারতীয় বৈঠক বয়কট করেন।’এই সূত্রেই সেলিমের অভিযোগ দিলীপ ঘোষ সরকারি সম্পত্তি নষ্ট করলে গুলি করে মারার যে নির্দেশ জারি করেছেন মমতার বাহিনি সেটাই হয়তো পালন করছে।জলঙ্গিতে স্থানীয় মানুষজন সিএএ বিরোধিতায় এলাকায় বনধ ডাকার পরিকল্পনা করায় স্থানীয় তৃণমূল নেতা তাদের উপর চডাও হয় বলে অভিযোগ।সেলিম বলেন,তৃণমূলের সর্বোচ্চ নেত্রী বনধের বিরুদ্ধে ক্ষমতায় বসার পর থেকেই সব সময় সুর চড়াচ্ছেন তার প্রভাব তো স্থানীয় নেতাদের উপর পড়বেই।সিএএ বিরোধি লড়াই তৃমমূলের হাত থেকে যাতে বেড়িয়ে না যায়,যাতে মোদী অমিত শাহদের বড় কোন বিপদে না পড়তে হয় সেটা তলে তলে তৃণমূল নিশ্চিত করতে চাইছে কিনা এই ঘটনার পর সে প্রশ্নও উঠবে।মমতার বাহিনি দিলীপ ঘোষের নির্দেশ পালন করলো কিনা তা জানতে এই ঘটনার পুর্ণাঙ্গ তদন্ত দাবি করেছেন মহম্মদ সেলিম।