দিলীপ ঘোষের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু করতে চলেছেন মহম্মদ সেলিম

0
3956

অনুপম কাঞ্জিলালঃ-প্রকাশ্য সভায় যেভাবে গুলি করে প্রতিবাদী মানুষকে খুন করার হুমকি দিচ্ছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ তাতে তার পরেও তাঁর বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা না নিয়ে চুপ থাকা যায় না।রাজ্য সরকার কিছু না করলেও তিনি আইনজীবীদের সঙ্গে কথা বলে য়ত তাড়াতড়ি সম্ভব দিলীপ ঘোষের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করবেন বলে জানালেন সিপিএমের পলিটব্যুরো সদস্য ও প্রাক্তন সাংসদ মহম্মদ সেলিম।এদিন দিলীপ ঘোষের মন্তব্য নিয়ে প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে মহম্মদ সেলিম বলেন,এদেশের সংবিধানের রীতি অনুযায়ী সরকার কোন ব্যক্তিকে খুন করার কথা বলতে পারে না।কোন সাংসদ সাম্প্রদায়িক বিভাজন উসকে দিতে পারে না,অথচ দিলীপ ঘোষ বার বার সেই সব মন্তব্যই করে চলেছেন।সাতদিন ডটইনকে মহম্মদ সেলিম জানান সরকার দিলীপ ঘোষের কুতসিত মন্তব্যের পরেও তার বিরুদ্ধে বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নিচ্ছে না, এর থেকে তৃণমূল ও বিজেপির যোগসাজসের বিষয়টাই পরিষ্কার হয়ে যায়। দিলীপ ঘোষের বিরুদ্ধে আইপিসি এ-বি সি ছাড়াও আর বেশ কয়েকটি ধারায় এখনই অভিযোগ দায়ের হওয়া উচিত বলে মনে করেন সিপিএমের এই প্রাক্তন সাংসদ।তিনি এ বিষয়ে আইনজীবীদের সঙ্গে কথা বলা শুরু করেছেন অচিরেই দিলীপবাবুকে কোর্টের নোটিশ পাঠানো হবে বলে জানান মহম্মদ সেলিম।

সেলিম বলেন,দিলীপবাবু অসমে তাদের সরকারের দাপটের কথা বলছেন অথচ সেরাজ্যে তাদের প্রধানমন্ত্রী পা রাখতে ভয় পাচ্ছেন,তাঁকে সফর বাতিল করে পালিয়ে আসতে হচ্ছে।অসমে বিজেপির নেতাদের মানুষ ঘরে ঢুকিয়ে দিয়েছে প্রতিবাদের জোয়ারে ।আর এখানে দাড়িয়ে তিনি বড় বড় কথা বলতে পারছেন শুধুমাত্র মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সৌজন্যে।কেন হিংসা ছড়ানো,খুনকে গ্লোরিফাই করা,খুনের হুমকি দেওয়ার জন্য অবিলম্বে দিলীপ ঘোষকে গ্রেপ্তার করা হবে না সে প্রশ্ন তুলে সিপিএমের এই পলিটব্যুরো সদস্য নিজেই উত্তর দেন আমরা এই কেন’র উত্তর জানি এখানে দিদিভাই মোদীভাইয়ের পারস্পরিক বোঝাপড়া ধারাবাহিকভাবে কাজ করে যাচ্ছে।তবে তিনি যে এই বিষয়টি ছেড়ে দেবেন না তা জানিয়ে মহম্মদ সেলিম পরিষ্কার জানিয়ে দেন তিনি অবিলম্বে এই খুনের হুমকি দেয়ার জন্য দিলীপ ঘোষকে আদালতে টেনে নিয়ে যাবেন।দিলীপবাবুর সংবিধান সম্পর্কে অজ্ঞতা ও অশিক্ষা নিয়ে আশঙ্কা প্রকাশ করেন প্রক্তন এই বাম সাংসদ।

লোকসভার স্পিকার এ বিষয়ে কোন স্বতঃপ্রণোদিত ব্যবস্থা নিতে পারেন কিনা জিজ্ঞাসা করায় মহম্মদ সেলিম বলেন,স্পিকার অবশ্যই ব্যবস্থা নিতে পারেন,কিন্তু বিজেপির নরেন্দ্র মোদী আর  অমিত শাহ ছাডা এরা কারোর কথা শোনেন বলে বিশ্বাস করা কঠিন।যারা নারদা কান্ডে প্রকাশ্যে টাকা নিতে দেখা যাওয়ার পরেও ব্যবস্থা নিতে পারলো না তারা সংবিধানের রীতি মানতে কোন ব্যবস্থা নেবে এই প্রত্যাশা করা মূর্খতা ছাড়া আর কী হতে পারে।তবে দিলীপ ঘোষের মন্তব্যের জন্য আইনি ব্যবস্থা যে তারা নেবেন তা পরিষ্কার করে দিয়েছেন সিপিএম নেতা মহম্মদ সেলিম।