NPR নিয়ে কেন্দ্রের বৈঠকে কেন তা বাতিলের দাবি জানাল না বিরোধী রাজ্যগুলো?

0
193

সাতদিন ডেস্কঃ  শুক্রবার দিল্লিতে NPR  নিয়ে রাজ্যের প্রতিনিধিদের সঙ্গে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের সচিব ও রেজিস্ট্রার জেনারেলের অাধিকারিকদের এক বৈঠক হয়ে গেল। পশ্চিমবঙ্গ ছাড়া অন্যান্য রাজ্যের প্রতিনিধিরাই সেই বৈঠকে হাজির ছিলেন। মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী বৈঠকে উপস্থিত বিভিন্ন রাজ্য সরকারের তরফে বাবা মায়ের জন্মস্থান ও তারিখের বিষয় এনপিঅার এ যে প্রশ্ন যোগ করা হয়েছে তাতে অাপত্তি জানান হয়েছে। ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের রিপোর্ট অনুযায়ী বৈঠকের পর রাজস্থানের মুখ্যসচিব ডিবি গুপ্তা  জানিয়েছেন যে দেশে জনগণের কাছে বাবা মায়ের জন্ম তারিখ জানতে চাওয়া বাস্তব সম্মত নয়। কারণ অধিকাংশ মানুষই নিজের জন্মতারিখ মনে রাখতে পারেন না। এর উত্তরে রেজিস্ট্রার জেনারেল জানিয়েছেন ওই প্রশ্নের উত্তর দেওয়া ঐচ্ছিক, বাধ্যতামূলক নয়।

কয়েকদিন অাগেই কংগ্রেস ওয়ার্কিং কমিটির সভায় সনিয়া গান্ধী বলেছিলেন যে এনপিঅার অাসলে  ছদ্মবেশী   এনঅারসি। এই নিয়ে কারো কোন সংশয় থাকা উচিত নয়। তার পরও কংগ্রেস শাসিত রাজ্যের প্রতিনিধিরা এই বিষয়টি বৈঠকে উত্থাপিত না করায় প্রশ্ন উঠছে অনেকের মনে। কারণ দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সংসদে দাঁড়িয়ে বলেছেন দেশজুড়ে এনঅারসি হবে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের নোটে স্পষ্ট বলা অাছে এনপিঅার হল এনঅারসির প্রথম ধাপ। তাহলে  তা স্পষ্ট করে এনপিঅার এর বিরোধি রাজ্যগুলো রেজিস্ট্রার জেনারেলকে জানালেন না কেন? তাছাড়া রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে বাবা মার জন্মস্থান বা জন্ম তারিখের প্রশ্ন ঐচ্ছিক করা মানেই উত্তর না পেলে নাগরিককে সন্দেহজনক ভোটার তালিকায় ফেলার অাশঙ্কা উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। ২০২০ সালের এনপিঅার এ নতুন করে ও্ই তথ্য জানতে চাওয়ার অর্থই ঘুর পথে এনঅারসি লাগু করতে চাইছে সরকার । অন্তত এমনটাই মনে করেছেন অনেকে।

প্রধানমন্ত্রী যাই বলুন না কেন বিজেপি যে এনঅারসি করতে বদ্ধপরিকর তা সবার জানা। সিএএ, এনঅারসি বিরোধিতায় মানুষের প্রতিবাদের সামনে কিছুটা কৌশল বদল করেছে মাত্র। বিরোধী রাজনৈতিকদলগুলির অবস্থানে বিভ্রান্তি বাড়ছে। এরাজ্যে মোদি মমতা সেটিং এর অভিযোগ করছে কংগ্রেস ও সিপিএম। অার কেরল গোপনে সিএএ লাগু করতে চাইছে পিনরাই বিজয়ন সরকার অন্তত এমনটাই অভিযোগ সে রাজ্যের কংগ্রেস নেতারা। তাই অনেকেই বলছেন এনঅারসি রুখতে রাস্তাই একমাত্র ভরসা জনগণের।