ছাত্রীদের অন্তর্বাস খুলিয়ে তল্লাসি এই প্রথম নয়।

0
98

সাতদিন ডেস্কঃ গুজরাটে একটি কলেজের ছাত্রীদের অন্তর্বাস খুলতে বাধ্য করা হয়েছে এটা দেখার জন্য তাঁরা ঋতুমতী কিনা। এই নিয়ে মিডিয়া জুড়ে হইচই শুরু হয়েছে। গুজরাট বলে একটু বেশি গুরুত্বও পাচ্ছে। কিন্তু এটা এদেশে প্রথম নয়। বোধ হয়  শেষ ও নয়। ২০১৮ সালের নভেম্বর মাসে পাঞ্জাবের একটি স্কুলের টয়লেটে স্যানিটারি ন্যাপকিন ফেলে দেয় কোন ছাত্রী। তাঁকে ধরতে সব ছাত্রীর অন্তর্বাস খুলিয়ে তল্লাশি চালান হয়েছিল কে সেই সময় ঋতুমতী ছিলেন।

শবীরমালায় সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ সত্বেও ঋুতুমতী মহিলাদের মন্দিরে প্রবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে না। সেখানকার বামপন্থী সরকার কার্যত দর্শকের ভূমিকায়। সুপ্রিম কোর্টও নিজের দেওয়া রায়কে পুনর্বিবেচনার জন্য বৃহত্তর বেঞ্চে পাঠিয়েছে। অাসলে সমাজে সামন্ততান্ক্রিক পুরনো ধ্যানধারনা এখন গভীরে রয়েছে। হাতে স্মার্ট ফোন বা ডিজিটাল ইন্ডিয়ার কথা যতই বলা হোক এখনও মহিলাদের নানাভাবে প্রতিদিন লাঞ্ছিত হতে হয়। অবশ্য অনেক মহিলা অাবার এগুলিকে নিয়ম বলে মেনে পালন করতেই চান। সেটাই উদ্বেগের।