ভাল NPR খারাপ NPR বলে কিছু হয় কি? ২০১০ প্রশ্নমালায় বিহার সরকারের এনপিঅার এর সিদ্ধান্তে নয়া বিভ্রান্তি?

0
139

সাতদিন ডেস্কঃ কেন্দ্রের তরফে ইতিমধ্যেই জানান হয়েছে অাগামী ১ এপ্রিল থেকে এনপিঅার এর কাজ শুরু হবে। প্রথমে রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের তথ্য নথিভুক্ত করণের মাধ্যমেই তা শুরু করা হবে। এবার বিহারের নীতীশকুমারের সরকারও জানাল তারা এনপিঅার এর কাজ শুরু করবে। তবে তা হবে ২০১০ সালের এনপিঅার এর প্রশ্নমালা অনুসারে। অর্থাত্ এবারের এনপিঅার এ বাবা মায়ের জন্ম স্থান ও জন্ম তারিখ, অাধার , পাসপোর্ট, মোবাইল নম্বর ইত্যাদি যা জানতে চাওয়া হবে তা অবশ্য বাদ দিয়ে বিহারে এনপিঅার এর কাজ শুরু করা হবে বলে রবিবার এক অনুষ্ঠানে জানিয়েছেন বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার।

অার এখানেই বিভ্রান্তি তৈরি হয়েছে ফের। তাহলে কি ২০১০ সালের এনপিঅার ভাল ছিল অার ২০২০ সালের এনপিঅার খারাপ। মানবাধিকার অান্দোলনের কর্মী রঞ্জিত শূর  এই বিষয় সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে জানিয়েছেন ভাল এনপিঅার অার খারাপ এনপিঅার বলে কিছু হয় না। এনপিঅার মানেই এনঅারসির প্রথম ধাপ। তাঁর দাবি এনঅারসি করা ছাড়া এনপিঅার করার কোন মানে নেই। রঞ্জিত শূর জানিয়েছেন  পুরভোটের পর এরাজ্যেএ বিহারের কায়দায এনপিঅার শুরু করা হতে পারে বলে অামলা মহলে শোনা যাচ্ছে । যদিও রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এনপিঅার হবেন না বলে এখনও পর্যন্ত জানিয়েছেন।

কংগ্রেসের তরফে এক সময় বলা হয়েছিল তাদের অামলের এনপিঅার অার ২০২০ সালের এনপিঅার এক নয়। প্রশ্ন হচ্ছে নতুন কিছু প্রশ্ন যোগ করার জন্যই কি এনপিঅার এর চরিত্র পাল্টে গেছে নাকি এনপিঅার অাসলে এনঅারসির প্রথম ধাপ। তাই যদি না হয়ে তাহলে কংগ্রেসের তরফে কেন এনপিঅারকে ছদ্মবেশী এনঅারসি বলা হচ্ছে? ২০০৩ সালের নাগরকিত্ব সংশোধনী অাইনেই কি এনঅারসির বিষয়টি নেই? কংগ্রেস যখন এনপিঅার করেছিল তার উদ্দেশ্য কি এনঅারসি করা ছিল না? পরে অাধার সামনে চলে অাসায়  এনঅারসির বিষয়টি পিছনে চলে যায় বলে মত  এনঅারসি বিরোধী সংগঠনের অনেকেরই। এটা সত্যি সিএএ র বিষয়টি এনঅারসি বা এনপিঅার এর সঙ্গে জুড়ে যাওয়ায় এর সঙ্গে  একে অন্যমাত্রা দিয়েছে।

অার কয়েকদিন পর থেকেই সারা দেশে এনপিঅার এর কাজ শুরু হবে। কেরল , পশ্চিমবঙ্গ ও মধ্যপ্রদেশ ছাড়া অাপাতত এনপিঅার হবে না বলে কোন রাজ্য সরকার স্পষ্ট করে জানায়নি। বরং কৌশলে এনপিঅার  করার সিদ্ধান্ত নিল বিহার সরকার। কেরল সরকার এনপিঅার এর কাজ করা হবে না বলে জানালেও  বঙ্গ সিপিএ অাবার কোন প্রশ্নের উত্তর দেওয়া যেতে পারে কোনগুলির না তা নিয়ে প্রচারের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ফলে এনপিঅার এর বিরোধিতায় রাজ্যে বাড়ছে বিভ্রান্তি। এখন দেখার এই রাজ্য এনপিঅার অাদৗে হয় কি না, হলে তার বিরুদ্ধে প্রতিরোধই বা হয় কী করে?