রাজ্য বাজেটে রাজ্য সরকারি কর্মীদের প্রত্যাশার বিষয় প্রশ্ন করতেই তেলেবেগুনে জ্বলে উঠলেন মুখ্যমন্ত্রী

0
1293

সাতদিন ডেস্কঃ রাজ্য বা কেন্দ্র যে সরকারের মন্ত্রী হোন না কেন কেউই বোধহয় বিন্দুমাত্র অপ্রিয় প্রশ্ন  সহ্য করতে পারেন না। রাজ্য বাজেটের পেশের পর সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়েছিলেন রাজ্যর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কেন্দ্রের বঞ্চনার ভাঙা রেকর্ড বাজানোর পর তিনি জনগণের জন্য কত কি করেছেন তার ফিরিস্তি দিলেন মুখ্যমন্ত্রী। ৩ মাসে ৭৫ ইউনিট পর্যন্ত ব্যবহারকারী পরিবারকে বিনামূল্যে বিদ্যুত দেবে রাজ্য সরকার। এরকম বেশকিছু সামাজিক প্রকল্পের ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী। সব ভালই চলছিল। হঠাত্ এক সাংবাদিক বিনয়ের সঙ্গে প্রশ্ন করলেন এবাজেটে রাজ্য সরকারি কর্মীরা  একটু প্রত্যাশা করেছিলেন। ব্যাশ এতেই তেলেবেগুনে জ্বলে ওঠেন মমতা। সাংবাদিককে লক্ষ করে বলতে শুরু করেন যা দেবার তা অাগেই দিয়ে দিয়েছি। অাপনি দিয়ে দিন না। অাপনারা যে কোম্পানিতে চাকরি করেন সেখানে তো ২ মাসের বেতন দিয়ে লোক ছাঁটাই করছেন। অার কত বলবেন। একটু পজেটিভ হোন না। অন্তত রাজ্যের জন্য। ঘ্যানঘ্যান করতে নিষেধ করেন মুখ্যমন্ত্রী।মুখ্যমন্ত্রী বলেন ”  ঘ্যাঁচ ঘ্যাঁচ করবেন না “।

এরাজ্যে সাংবাদিকেরা অপ্রিয় প্রশ্ন করতে অনেকদিন অাগেই ভুলে গেছেন। দাদা দিদিদের কাছাকাছি থাকার তাগিদে ও নিজের সংস্থার কর্তার গুডবুকে থাকার জন্য কেউ এখন অার অপ্রিয় প্রশ্ন নেতা মন্ত্রীদের করেন না। মুখ্যমন্ত্রীকে তো নয়ই। বরং পুজোতে পাঞ্জাবী উপহার পেয়ে অাহ্লাদে অাটখানা হন। এখন সাংবাদিক বৈঠক মানেই সাজানগোছান। অগোছালো প্রশ্ন দেখলেই বিরক্ত হন মন্ত্রীরা। মুখ্যমন্ত্রীর এদিনের অাচরণ তার ব্যতিক্রম নয় বলেই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।মুখ্যমন্ত্রী সরকারের সাফল্য গোনাতে  এদিন জানিয়েছেন গ্রামে  অনেক শ্মশাণ তাঁর সরকার তৈরি করে দিয়েছে।