এই কঠিন সময়ও গণতান্ত্রিক বোধ বাজায় রাখা জরুরিঃমীরাতুন নাহার

0
53

সাতদিন ডেস্কঃ-দেশের এই ভয়াবহ বিপদের দিনেও সব রাজনীতিক  নাগরিককে গণতান্ত্রিক বোধ বজায় রাখার পরামর্শ দিলেন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ মীরাতুন নাহার।দেশ যে ভয়াবহ বিপদের মোকাবিলা করছে তা প্রতিরোধে গণতান্ত্রিক বোধকে অবরুদ্ধ করতে চাইলে তা আর এক বিপদকে আহ্বান করে আনবে বলে আশঙ্কা এই শিক্ষাবিদের।প্রধানমন্ত্রী যে ভাবে গোটা দেশে টানা ২১ দিনের লকডাউন ঘোষণা করেছেন তার অপরিহার্যতা মেনে নিয়েও নাগরিক আন্দোলনের একজন সক্রিয় কর্মী হিসেবে মীরাতুন নাহার প্রশ্ন তুলেছেন কেন প্রধানমন্ত্রীর ভাষণে গণতান্ত্রিক সৗেজন্যবোধের মোড়ক থাকবে না?কেন তিনি ২১ দিন টানা লকডাউনের ঘোষণায় কোন ‘যদি’ বা ‘তবে’র (if -then) রাখবেন না?এই টানা ঘরবন্দি থাকাকালীন এমন অবস্থা তো তৈরি হতে পারে যে লকডাউন তুলে নেওয়া যায়,বা লকডাউনকে আর দীর্ঘ করার প্রয়োজন হল।সেক্ষেত্রে প্রধানমন্ত্রীর তো উচিত ছিল গোটা পরিস্থিতির পর্যালোচনার উপর বিষয়টা নির্ভর করছে বলে নাগরিককে জানানো।তা না করে প্রধানমন্ত্রী যে ভাবে বেদ বাক্যের মত করে তাঁর নির্দেশ জারি করছেন তা গণতান্ত্রিক বোধের সঙ্গে একেবারে মেলে না বলেই মীরাতুন নাহারের অভিমত।

  প্রধানমন্ত্রীর ভাষণে মানুষকে কাসর-ঘন্টা বাজানোর যে পরামর্শ তা থেকে ভুল বার্তা গেছে বলে মনে করেন মীরাতুন নাহার।এই মুহূর্তে মানুষকে নিয়ে রজনীতি না করার আবেদন রাখছেন এই শিক্ষাবিদ।তাঁর আহ্বান ভোটের স্বার্থকে দুরে সরিয়ে সব রাজনীতিকদের এখন মানুষের নিরাপত্তা নিয়ে ভাবা উচিত।আতঙ্ক কাটাবার নামে কিছু সংবাদ মাধ্যম আতঙ্ক তৈরি করছে বলে অভিযোগ মীরাতুন নাহারের।চিকিত্সকদেরও উচিত এই সময় সরকারি হুমকিকে উপেক্ষা করে সাধারণ মানুষের স্বার্থে সরকারের সীমাবদ্ধতা বা উদাসীনতার বিরুদ্ধে সরব হওয়া।চিকিত্সকদের অধিকাংশই যে সরকারি হুমকির কাছে বশ্যতা মেনে চলতে ্অভ্যস্ত হয়ে উঠেছেন তা নিয়েও আশঙ্কা প্রকাশ করেন এই বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ।

  এই সময়ে মানুষের কাছে সঠিক তথ্য ও সুযোগ পৌঁছে দেওয়ার জন্য সরব হতে বিবেকবান মানুষের কাছে আবেদন রাখছেন সমাজ আন্দোলনের সক্রিয়  কর্মী মীরাতুন নাহার।