থাপ্পড কি সমাজকে সিধে করতে পারবে?

0
38

রীতেন্দ্র রায়চৌধুরীঃ এক থাপ্পড(চড়) এক সুখী গৃহবধূর জীবনে কী পরিবর্তন নিয়ে অাসতে পারে তা নিয়েই অনুভব সিনহার ছবি থাপ্পড। সমাজের উচ্চমধ্যবিত্ত পরিবারের এক মহিলার   অাত্মসম্মাণকে ঘিরে এই ছবি হলেও ,এই ছবি সমাজের  সব অংশের মহিলারাই যে পুরুষতান্ত্রিকতার শিকার তা দেখাতে চেষ্টা করেছে ।

 স্বামী ও শাশুড়িকে ঘিরে অাপাতত সুখি সংসার অমৃতার। অফিস থেকে প্রমোশন পেয়ে অমৃতার স্বামীর লন্ডনে যাওয়ার পরিকল্পনায় হঠাত্ অাসে নাটকীয় মোড়। অার সেখানেই অমৃতাকে চড় মেরে বসেন তাঁর স্বামী। এক চড়েই অমৃতা বুঝতে পারেন  তাঁর নিজের অবস্থান।একটু একটু করে উপলব্ধি করেন তিনি অার স্বামীকে ভালবাসেন না। যে স্বামীকে তিনি চিনতেন তাঁকে নতুনভাবে চিন্তে শুরু করেন অমৃতা। ছবিটি একটু শ্লো। চিত্রনাট্য মধ্যবিত্ত মালমশলা কম। তাবাদে ছবিটি ভাল।

থাপ্পড ছবিটির সিনেমাটিক সমালোচনার জন্য এই লেখা নয়। লেখকের সেই যোগ্যতাও নেই। অামাদের সমাজে মহিলাদের ওপর যে পুরুষতান্ত্রিক শোষণ চলে তা নিয়ে বাণিজ্যিক পরিসরে এই ছবি করার জন্য অনভব সিনহা প্রশংসার যোগ্য। কতটা ভুল  অারো কী হলে ভাল হত, এর থেকে অন্য ছবিটা অারো ভাল সেই তর্কে না গিয়েও বলা যায় মধ্যবিত্ত পুরুষদের অবশ্য দেখা উচিত এই ছবি।মহিলারা এই ছবি না দেখলে একটা ভাল কাজ মিস করবেন। তাপসি পান্নু অসাধারণ।ভাল অভিনয় করেছেন সকল সহ শিল্পীরা। অবশ্যই থাপ্পড দেখুন।