১.৭০ লক্ষ কোটির ঘোষণায় ফ্রি রেশন ছাড়া অধিকাংশটাই ভুয়ো

0
134

সাতদিন ডেস্কঃ দেশে লকডাউন চলছে। করোনা সংক্রমণ রুখতে প্রধানমন্ত্রী ২১ দিনের লকডাউন ঘোষণা করেছেন। কিন্তু গরীব মানুষদের কী হবে সেই নিয়ে কোন কথা প্রধানমন্ত্রীর মুখে শোনা যায়নি। বৃহষ্পতিবার তা শোনালেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ। অর্থমন্ত্রী দাবি করেছেন দেশে একজনকেও না খেতে পেয়ে যাতে থাকতে হয় তার জন্য সরকার বদ্ধপরিকর। ১ লক্ষ ৭০ হাজার কোটি টাকার গরীব কল্যাণ প্যাকেজে রেশন দোকানের মাধ্যমে অাগামী ৩ মাস ৫কেজি চাল বা গম ও পরিবার পিছু মাসে ১ কেজি চালের ঘোষণা ছাড়া তেমন কিছু মিলল না। স্বাস্থ্যকর্মীদের জন্য ৫০ লক্ষ টাকার বিমার ঘোষণা করেছে সরকার।

অর্থমন্ত্রী সরাসরি ক্যাশ ট্রান্সফারের নামে যা ঘোষণা করেছেন তা হয় ভুয়ো নতুবা নামমাত্র। যেমন ১০০ দিনের কাজে দৈনিক মজুরি বৃদ্ধির কথা ঘোষণা করেছেন অর্থমন্ত্রী। এতে নাকি মাসে ২০০০ টাকা বেশি অায় হবে পরিবারগুলির। কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে কাজ হলে তবে তো মজুরি ? ৮কোটি৬৯ লক্ষ কৃষকদের প্রধানমন্ত্রী যোজনার অন্তর্গত বছরে যে ৬ হাজার টাকা দেওয়া হয়ে থাকে তার প্রথম কিস্তি ২০০০ টাকা এখনি দেওয়া হবে।অর্থাত্ বাড়তি কোন টাকা নয়। সামাজিক পেনশন প্রকল্পে গরীব বিধবা, বয়স্কদের এককালীন ১০০০ টাকা করে দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন অর্থমন্ত্রী।জনধনপ্রকল্পে মহিলাদের অ্যাকাউন্টে ২ কিস্তিতে ৫০০ করে ১০০০ টাকার কথা বলা হয়েছে এদিন। উজ্বলা প্রকল্পে অাগামী ৩ মাস বিনামূল্যে গ্যাস পাবে পরিবারগুলি। কিন্তু কোটি কোটি দরিদ্র পরিবার যারা উজ্বলা প্রকল্পের অাওতায় নয় তাদের এই সুবিধা নয় কেন তা নিয়েও উঠছে সেই প্রশ্ন। অর্থমন্ত্রী ১৫০০০ টাকা নীচে বেতন পাওয়া সংগঠিত কর্মীদের (যে সংস্থায় ১০০ নীচে লোক কাজ করেন) অাগামী ৩ মাসের পিএফ কন্ট্রিবিউশনের কথাও ঘোষণা করেছেন এদিন। নির্মাণ শ্রমিকদের জন্য রাজ্যেগুলির হাতে থাকা ৩১ হাজার কোটি টাকা( ১ শতাংশ সেস বাবদ অাদায় করা  হয়, যা অধিকাংশ প্রমোটারই জমা দেয় না) খরচ করতে বলেছেন অর্থমন্ত্রী।

এদিনের গরীব কল্যাণ প্যাকেজে অসংগঠিত ক্ষেত্রে কর্মরত মানুষদের জন্য কোন ঘোষণা করেনি সরকার। কী হবে লক্ষ লক্ষ হকার, রিক্সা চালক, ছোট দোকানদার,ফুড স্টল হোল্ডার সহ নাান ধরনের অসংগঠিত কাজের সঙ্গে যুক্ত মানুষদের।দরকার ছিল গরীব মানুষদের সরাসরি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে টাকা ৫ থেকে ১০ হাজার টাকা ট্রান্সফার করা । সে পথে না হেঁটে সরকার নিজের ঢাক পেটানোর রাস্তায় বেছে নিল শেষমেশ।