জটিল অঙ্কঃ রাজ্যে করোনা পজি‌টিভ মৃতের সংখ্যা ১০৫ তবে করোনার কারণেই মৃত ৩৩ জানিয়েছে ডেথ অডিট কমিটি!

0
134

সাতদিন ডেস্কঃ ফের রাজ্যের মুখ্যসচিব রাজীব সিনহা জানিয়েছেন এরাজ্য ঠিক কতজন করোনায় মৃত্যু হয়েছে তার তথ্য। বৃহষ্পতিবার নবান্নে সাংবাদিক বৈঠকে মুখ্যসচিব বলেন ডেথ  অডিট কমিটির রিপোর্ট অনুযায়ী এরাজ্যে করোনায় মৃতের সংখ্যা এখন ৩৩।  মুখ্যসচিব জানিয়েছেন ডেথ অডিট কমিটির কাছে ১০৫টি মৃত্যুকে রেফার করা হয়েছিল। বাকিদের মৃত্যুর কারণ করোনা নয় বলে তারা জানিয়েছেন। অন্য কোন রোগের কারণে তাঁদের মৃত্যু ঘটেছে বলে মত ডেথ অডিট কমিটির। যদিও তারা সকলেই কোভিট ১৯ পজিটিভ ছিলেন বলে জানিয়েছেন মুখ্যসচিব। গত সপ্তাহে এরকমই তথ্য দিয়ে তিনি বলেছিলেন এরাজ্যে ৫৭জনের মৃত রোগী করোনা পজিটিভ ছিলেন তবে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ১৮জনের বাকিরা করোনা পজিটিভ থাকলেও তাঁদের মৃত্যুর কারণ অন্যরোগ।

ঘটনার সূত্রপাত  এপ্রিলের  প্রথম দিকে যখন স্বাস্থ্য অাধিকারিকদের  তরফে সাংবাদিক সম্মেলনে জানান হয়েছিল রাজ্য করোনায় মৃতের সংখ্যা ১০। এর পর তড়িঘড়ি মুখ্যমন্ত্রী দাবি করেন করোনায় রাজ্যে মৃত ১০ নয় ৭। বাকি৩জনের অন্যকোন  রোগের কারণেও মৃত্যু হয়ে থাকতে পারে। এর পর সামনে অাসে করনো ডেথ অডিট কমিটি। এই কমিটির ছাড়পত্র ছাড়া এরাজ্যে করেনায় মৃত্যু হয়েছে কিনা তা অার চিকিত্সকেরা বলতে পারছিলেন না। সেই নিয়ে নানা মহলে নানা প্রশ্ন উঠছিল। তথ্য চাপা দেওয়ার অভিযোগ উঠছিল রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে। এদিন সেই সংশয়ের উত্তর দিলেন মুখ্যসচিব।

কেন্দ্রের বিরুদ্ধে টেস্ট কম করে অাক্রান্ত কম দেখানোর অভিযোগ উঠছে। রাজ্যের বিরুদ্ধে কম টেস্টের পাশাপাশি করোনা অাক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর সংখ্যা চেপে দেওয়ার অভিযোগ উঠছে। এই অাবহে কি সুষ্ঠুভাবে করোনা মোকাবিলা সম্ভব? রাজ্যে করোনা পজিটিভ থাকা সত্ত্বেও যে ৩৯জনের মৃত্যু করোনায় হয়নি  বলা হচ্ছে তাঁদের শেষকৃত্যের সময় কি সতর্কতা মানা হয়েছিল যা এক করোনা রোগীর মৃত্যুর ক্ষেত্রে করা হয়ে থাকে? যদি না হয়ে থাকে তাহলে কি সংক্রামিত হওয়ার অাশঙ্কা বেড়ে গেল না? মৃৃত ৫৭জন কোভিট ১৯ পজিটিভ  বললে কি রাজ্যের খুব অস্বস্তি বাড়তো? অাসলে কেন্দ্র বা রাজ্য কেউই বোধ হয় সঠিক তথ্যটা নাগরিকদের সঙ্গে শেয়ার করতে চান না। এক অর্ধসত্যের পরিবেশ তৈরি করে নিজেদের পিঠ নিজেরাই চাপড়াতে চান। এতে অার যাই হোক করোনা মোকাবিলা কতটা করা সম্ভব তা নিয়ে সন্দেহ থাকছে।