বিজেপির দেশ বিক্রি আটকাতে এখনই রুখে দাঁড়াবার বার্তা সিপিএম ও কংগ্রেসের

0
1331

সাতদিন ডেস্কঃ-করোনার ভীতিতে সামনে রেখে বিজেপি যেভাবে তাদের নীতিগত সিদ্ধান্ত সাধারণ মানুষের উপর চাপিয়ে দিচ্ছে তাতে পরিষ্কার করোনাকে ঢাল করে তারা বড় পুঁজিপতিের হাতে গোটা দেশকে বেঁচে দিতে চলেছে।এখনই এর বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে না পারলে দেশের মানুষের সামনে বড়ে বিপদ আসতে চলেছে বলে মনে করছে রাজ্য সিপিএম ও কংগ্রেস।শনিবার দেশের অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামণ তাঁর করোনা প্যাকেজ নিয়ে চতুর্থ দফার ভাষণ শেষ করতেই তীব্র প্রতিক্রিয়া জানান সিপিএমের প্রাক্তন সাংসদ ও পলিটব্যুরো সদস্য মহম্মদ সেলিম।মহম্মদ সেলিম জানতে চান করোনার ফলে আর্থিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়া মানুষকে রিলিফ দেওয়ার সঙ্গে অর্থমন্ত্রীর এই কয়লা খনিগুলোকে  বেসকরকারি সংস্থার কাছে উন্মুক্ত করে দেওয়ার ঘোষণার কী সম্পর্ক থাকতে পারে?করোনা বিপর্যয় মোকাবিলার সঙ্গে কী সম্পর্ক থাকতে পারে দেশের প্রতিরক্ষা সরঞ্জাম উত্পাদনে বিদেশি বিনিয়োগের পরিমাণ একলাফে ৪৯ শতাংশ থেকে ৭৪ শতাংশ করে দেওয়ার?সেলিমের মতে আসলে নিবর্বাচন জেতার জন্য বিজেপি যাদের কাছ থেকে অর্থ নিয়েছিল এখন সেই আদানিদের মত ব্যবসায়ী গোষ্ঠীকে খুশি করার যাবতীয় প্রয়াস চালিয়ে যাচ্ছে বিজেপি নামক এই চরম দক্ষিণপন্থী দলটি।করোনার প্রকোপে দেশের কোটি কোটি মানুষ যখন চরম দুর্দশার মধ্যে পড়েছেন,যখন হাজার হাজার পরিযায়ী শ্রমিক রাস্তায় তখন তাদের কথা না ভেবে,তাদের জন্য কোন সুরাহার কথা চিন্তা না করে করোনা কে ঢাল হিসেবে ব্যবহার করে বিজেপি নিজেদের নীতিগত সিদ্ধান্ত যা কিনা মুষ্টিমেয় ধনিশ্রেণিকে মদত দেবে সেই চেষ্টাই করে যাচ্ছে।মহম্মদ সেলিমের কথায় যেভাবে কয়লা ও প্রতিরক্ষা বিষয়ে বর্তমান কেন্দ্রীয় শাসক সরকারি কব্জা আলগা করতে চাইছে তাতে তারা যে অচিরেই সেসব জায়গা বেসরকারি সংস্থার হাতে তুলে দেবে তা নিশ্চিত।বস্তুত সরকারের এই সিদ্ধান্ত তারই প্রথম ধাপ। গোটা দেশটাকে বেঁচে দিতে চাইছে বিজেপি এই অভিযোগ তুলে এই বাম নেতা বলেন,এখন রাজনীতির সময় নয় বলে যারা চুপ থাকবেন তারা দেশের বিপদটা বুঝতে পারছেন না,সমস্ত দক্ষিণপন্থীরাই এভাবেই দেশের সর্বনাশ ডেকে আনেন।মহম্মদ সেলিম মনে করেন এটাই রাজনীতির সঠিক সময় এখনই বিজেপিকে প্রতিরোধ করতে রাস্তায় নামতে হবে।একই রকম চরম প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন সিপিএম নেতা বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্যও,তাঁর মতে বিজেপির দাঁতৃ-নখ সব বেরিয়ে পড়েছে।মানুষের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছে ওরা এবার মানুষকেও ওদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করতে হবে।সময় নষ্ট করার কোন অবকাশ নেই বলে মনে করেন সিপিএমের এই সাংসদও।

বিজেপির বিরুদ্ধে অবিলম্বে রাস্তার নামা উচিত বলে মনে করেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্রও।তিনি বলেন দেশের সম্পত্তি বেঁচার নেশায় মেতেছে বিজেপি।মানুষের কষ্ট যন্ত্রনাকে সামনে রেখে ওরা শুধু দলীয় কাজ করে যাচ্ছে প্রতিরোধের জন্য পথে নামা ছাড়া উপায় নেই।দেশের প্রতিরক্ষাকে যেভাবে বেরসরকারিকরনের দিকে টেনে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা হচ্ছে তার ফল বিজেপি কে ভুগতে হবে বলে মত প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতির।সব মিলিয়ে বাম ও কংগ্রেস  এই করোনা আবহের মধ্যেও বিজেপি বিরোধিতার জন্য তৈরি হচ্ছে।