বিধায়কের অস্বাভাবিক মৃত্যু ঘিরে নানা স্বাভাবিক প্রশ্ন

0
33

সাতদিন ডেস্কঃ হেমতাবাদের বিধায়ক দেবেন্দ্রনাথ রায়ের অস্বাভাবিক মৃত্যু ঘিরে উত্তপ্ত রাজ্য রাজনীতি। প্রাথমিক তদন্তের পর পুলিস  একে অাত্মহত্যার ঘটনা বলে চালাতে চাইলেও মানতে নারাজ বিজেপি। বিজেপির তরফে দিলীপ ঘোষ অভিযোগ করেছেন খুন করে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে দেবেন্দ্রনাথ রায়কে। সিবিঅাই তদন্ত চেয়ে পথে নেমেছে বিজেপি। যদিও দলের অারেক নেতা মুকুল রায় অবশ্য বিচারবিভাগীয় তদন্ত চেয়েছেন। একই দলে রাজ্যের অন্যতম শীর্ষ নেতা নেতার ভিন্ন দাবি নিয়ে শুরু হয়েছে জল্পনা। বিষয়টি যথেষ্ট তাত্পর্যপূর্ণ।

কোন ব্যক্তি হাত পা বাঁধা অবস্থায় কী করে অাত্মহত্যা করতে পারেন সেই প্রশ্ন যখন সবাই করছেন সেই সময় পুলিস তড়িঘড়ি একে অাত্মহত্যা বলে দেগে দেওয়ার চেষ্টা করেছে।   অন্যদিকে রাত ১টার সময় কী এমন ডাক পড়ল বিধায়ক বাড়ি থেকে বেরলেন ? যারা তাঁকে ডেকে নিয়ে গিয়েছিল তারা কারা? কেউ কেন বাড়ি থেকে বেরিয়ে ১ কিমি দূরে বন্ধ দোকানের সামনে গিয়ে অাত্মহত্যা করবেন? এই সমস্ত প্রশ্নের উত্তর মিলছে না।

২০১৬  সালের বিধানসভা নির্বাচানে সিপিএমের টিকিটে নির্বাচিত হন দেবেন্দ্র নাথ রায়। তাঁর এই অস্বাভাবিক মৃত্যুতে প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে সিপিএমের পলিটব্যুরো সদস্য মহম্মদ সেলিম বলেছেন দেবেন্দ্রনাথ রায় সেদিনেই অাত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছিলেন যেদিন তিনি দিল্লিতে গিয়ে অাত্মবিক্রয় করে বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন। তবে তাঁর মৃত্যুর নিরপেক্ষ তদন্ত দাবি করেছেন সিপিএমের এই নেতা। সব থেকে অস্বাভাবিক বিষয় হল দেবেন্দ্রনাথ রায়কে বিজেপি বিধায়ক বলে মিডিয়ার পরিচিতি দেওয়া। সিপিএমের টিকিটে নির্বাচিত এক বিধায়ক দলবদল করে বিজেপিতে যোগ দিলে কি তিনি বিজেপির বিধায়ক হয়ে যান?