করোনার আক্রমণে প্রয়াত সিপিএম নেতা শ্যামল চক্রবর্তী

0
27

সাতদিন ডেস্কঃ-প্রয়াত হলেন সিপিএম নেতা ও রাজ্যের প্রাক্তন পরিবহণ মন্ত্রী শ্যামল চক্রবর্তী(৭৬)।কয়েকদিন আগে তিনি করোনায় সংক্রমিত হয়ে ভর্তি হন এক বেসরকারি হাসপাতালে।বৃহস্পতিবার দুপুর ১-৪৫ মিনিটে তাঁর মৃত্যু হয় বলে হাসপাতাল সূূত্রে জানানো হয়।শ্যামল  চক্রবর্তী সিপিএমের একজন প্রভাবশালী নেতা হিসেবেই পরিচিত ছিলেন।দীর্ঘদিন তিনি সিপিএমের শ্রমিক সংগঠন সিটুর প্রধান হিসেবে দায়িত্ব সামলেছেন।এক সময় বাম মন্ত্রীসভার প্রভাবশালী মন্ত্রী হিসেবেও তাঁর পরিচিতি তৈরি হয়।বেলেঘাটা বিধানসভা থেকে নির্বাচিত হয়ে তিনি একাধিকবার রাজ্যের পরিবহণ মন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেছেন।১৯৯৬ সালে বেলেঘাটা বিধানসভায় কংগ্রেস প্রার্থী হিসেবে পরেশ পালের কাছে পরাজিত হবার পর তিনি আর রাজ্য মন্ত্রীসভায় যান নি।এর পর থেকে ধারাবাহিক ভাবেই শ্যামল চক্রবর্তী দলের শ্রমিক সংগঠনের দায়িত্বই পালন করে গেছেন।সিপিএম দলে শ্যামল চক্রবর্তী উদারপন্থী বলেই গন্য হতেন।বাজার ব্যবস্থাকে বর্তমান অবস্থায় উপেক্ষা করা সম্ভব নয় বলেই বিশ্বাস ছিল শ্যামল চক্রবর্তীর।শ্রমিক সংগঠনের নেতা হয়েও উগ্র মালিক বিরোধিতায় তাঁর অনীহা ছিল বলেই জানা যায়।শ্যামলবাবু মনে করতেন ট্রেড তুলে দিয়ে ট্রেড ইউনিয়ন আন্দোলন করা যায় না।তাঁর এই ভাবনাকে অনেকে আপসকামীতা বলেও কটাক্ষ করেন।

শ্যামল চক্রবর্তীর মৃত্যুতে সিপিএমের মধ্যে নেতৃত্বের শূণ্যতা ক্রমশই বড় হচ্ছে বলে অনেকেই মনে করছেন।৭৬ বছর বয়সী শ্যামল চক্রবর্তী মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।শ্যামল চক্রবর্তীর একমাত্র কন্যা অভিনয় জগতের পরিচিত মুখ উষসী চক্রবর্তীকে ফোন করে মুখ্যমন্ত্রী শোক প্রকাশ করেন বলে খবর।গভীর শোক জ্ঞাপন করেছেন সিপিএমের রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্রও,তিনি জানিয়েছেন শ্যামল চক্রবর্তীর মৃত্যু বাম আন্দোলনে বড় এক শূণ্যতা তৈরি করবে।